একা থাকা অবস্থায় হার্ট এটাক হলে হার্ট এটাক থেকে কিভাবে বাঁচবেন ? দেখে নিন গুরুত্বপূর্ণ এই ভিডিওটি!!

by Lesar on নভেম্ভর ১৪, ২০১৩পোস্ট টি ১,৭০৪ বার পড়া হয়েছে in স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

মনে করুন, সন্ধ্যা ছয়টার সময় একা একা বাড়িতে বসে আছেন। বাসার মানুষেরা অন্য কামরাতে বসে টিভি দেখছে। হঠাৎ করে আপনার বুকে প্রচণ্ড ব্যথা শুরু হলো এবং সেই ব্যথা যেন আস্তে আস্তে করে আপনার নিচের চোয়ালের দিকে হেঁচড়ে আসা শুরু করলো! আপনার কাছাকাছি কেউ নেই। আপনি বুঝতে পারছেন, আপনার হৃদপিণ্ডে ক্রিয়া বন্ধ হবার উপক্রম হয়েছে। এখন আপনি কি করবেন???
হার্ট এটাক হবার ফলে অধিকাংশ সময় মানুষ মারা যান, কারণ তারা একা থাকেন। অন্য কারো সাহায্য ছাড়া তাদের বুকের ওপর পাম্প করে হৃদযন্ত্রে রক্ত সঞ্চালন সম্ভব হয় না, এবং ব্যথা শুরু হবার পরে অজ্ঞান হয়ে যাবার আগ পর্যন্ত সাধারণত তাদের হাতে ১০ সেকেণ্ড সময় থাকে ।

  • -এমতাবস্থায় বুকে ব্যথার শিকার ব্যক্তি নিজেকে সাহায্য করতে পারেন বারংবার জোরে জোরে উচ্চস্বরে কাশি দিয়ে।
  • - লম্বা করে শ্বাস নিন। এবার কাশুন। লম্বা সময় নিয়ে দীর্ঘ কাশি দিন। এর ফলে আপনার ফুসফুসে স্পাটাম/মিউকাস উৎপন্ন হবে।
  • - ‘শ্বাস – কাশি, শ্বাস – কাশি…’ এই প্রক্রিয়া প্রতি দুই সেকেণ্ডে একবার করে করতে থাকুন, যতক্ষণ না কেউ আপনার সাহায্যে এগিয়ে না আসে অথবা যতক্ষণ আপনার হৃদযন্ত্র একা একাই স্বাভাবিকভাবে স্পন্দিত হতে থাকে।
  • - লম্বা করে শ্বাস নেবার ফলে আপনি পর্যাপ্ত অক্সিজেন পাবেন। আর কাশির ফলে আপনার হৃদযন্ত্র সংকোচন-প্রসারণ হবে যার ফলে আপনার হৃদপিণ্ডের ভিতর দিয়ে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।
  • - এবং কয়েকবার কাশির ফলে উৎপন্ন সংকোচন-প্রসারণে হৃদযন্ত্রের স্বাভাবিক, স্বয়ংক্রিয় স্পন্দনে ফিরে আসার কথা। এরপরে অপর কোনো ব্যক্তির সাহায্যে আপনি হাসপাতালে পৌঁছতে পারবেন।

আপনি শিখে নিলেন। আপনি কি চান না আপনার প্রিয়জনটাও শিখে নিক? বাবা-মা, ভাই-বোন, দাদা-দাদি, নানা-নানি, বন্ধু-বান্ধব, সবাইকেই শেখান।কেননা আপনি একা শিখলে প্রাথমিক ভাবে হয়তো আপনাকে সাহায্য করতে পাড়বেন কিন্তু এর পরের কাজ গুলো কিন্তু আপনার আশে-পাঁশের মানুষটিকেই করতে হবে। কাজেই সবারই এই ব্যপারে সাধারণজ্ঞান থাকা উচিত যাতে করে সাহায্যহীনভাবে হার্ট এটাক করে কেউ আর মৃত্যুবরণ না করে। আমরা আপনাদের জন্য এখানে আরো একটি ভিডিও ক্লিপ দিয়ে দিচ্ছি যা দেখে আপনি বুঝতে পাড়বেন।

হার্ট অ্যাটাক হলে প্রাথমিক পর্যায়ে যা যা করনীয়?

যেহেতু এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি ভিডিও তাই আমরা এর সম্পর্কে লিখে বিস্তারিত জানিয়ে দিলাম কেননা অনেকে ইংরেজিতে ভালো নয় তাদের কাজে দিবে। যদি আপনার সামনে হঠাত করে কারো হার্ট অ্যাটাক হয় তাহলে নিচের কাজ গুলো করুন।
১- প্রথমে রোগীকে নাড়াচাড়া করে বা ডেকে তুলার চেষ্টা করুন, উত্তর বা সাড়া না পেলে রোগীকে সোজা করে শুয়িদে দিন এবং নিচের কাজ গুলো করুন?
১- যদি বুঝতে পারেন তার হার্ট অ্যাটাক হয়েছে তাহলে সবার আগে এম্বুলেন্স কল করুন।
২- রোগীর বুকের মাঝখানে ভিডিওতে দেখানো মতো দুই হাত দিয়ে পাঞ্চ করতে থাকুন (মিনিতে ১০০ বার এর মতো করে পাঞ্চ করতে হবে।)
৪-পাঞ্চ করা অবস্থায় পাঞ্চ করা থামিয়ে কোনভাবে রোগীর পালস চেক করা, মুখে মুখ লাগিয়ে অক্সিজেন দেওয়া বা অন্য কোন কিছু করার চেষ্টা করবেন না।আপনার যা করতে হবে!! এম্বুলেন্স না আসা পর্যন্ত পাঞ্চ করে যেতে হবে।
উল্লেখ্য ভিডিওটির প্রথম অংশে দুষ্টামি করে দেখানো হয়েছে হার্ট অ্যাটাক হলে যে কাজগুলো করা যাবে না। তাই দ্বিতীয় অংশ থেকে লক্ষ্য করুন।…………শেয়ার করে অবশ্যই অন্যকে দেখার সুযোগ করে দিন।আপনাদের সকলের মঙ্গল কামনা করছি।আমিওপারিরি সাথে আমাদের পরিবারের একজন সদস্য হয়ে থাকুন তাহলে আরো অনেক কিছু জানতে পাড়বেন।

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে এই লেখায় ক্লিক করে জানুন এবং  তুলে ধরুন। নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান। আর আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে রয়েছে অনেক মজার মজার সব ভিডিও সহ আরো অনেক মজার মজার টিপস তাই এগুলো থেকে বঞ্চিত হতে না চাইলে এক্ষনি আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে আসুন। এবং আপনি এখন থেকে প্রবাস জীবনে আমাদের সাইটের মাধ্যমে আপনার যেকোনো বেক্তিগত জিনিসের ক্রয়/বিক্রয় সহ সকল ধরনের বিজ্ঞাপন ফ্রিতে দিতে পাড়বেন। ]]

InstaForex *****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1176 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 1 comment… read it below or add one }

S. M. Ariful Islam নভেম্ভর ১৬, ২০১৩ at ৭:০৫ অপরাহ্ণ

Its very helpful for all. Thank you.

Reply

Leave a Comment