কানাডায় ২১ নারীকে অচেতন করে ডাক্তারের যৌন হয়রানি

by adilzaman on নভেম্ভর ২১, ২০১৩পোস্ট টি ৬২৯ বার পড়া হয়েছে in আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইনজেকশন দিয়ে অচেতন করে চার বছর ধরে রোগীদের যৌন হয়রানি করে আসছেন এক ডাক্তার। এই ডাক্তারের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী ২১ জন নারীর অভিযোগের পর টনক নড়ে কর্তৃপক্ষের। কানাডার জর্জ ডুডনট নামের এই অ্যানেসথিসিওলোজিস্টের বিরুদ্ধে এসব নারী কিস করা, গায়ে হাত দেয়া ও ওরাল সেক্সের অভিযোগ এনেছেন। উল্লেখ্য, ডুডনট নামের এই ডাক্তার ২০১০ সাল থেকে টরন্টোর নর্থ ইয়র্ক জেনারেল হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। ডুডনট তার নারী রোগীদেরকে ইনজেকশন দিয়ে অবশ করার পর তাদেরকে যৌন হয়রানি করতেন। ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরের কোন কোন অঙ্গকে অবশ করা হলেও মস্তিষ্ক কাজ করে। ফলে ওইসব নারী হয়রানির শিকার হওয়ার সময় তা টের পেয়েছেন; কিন্তু শরীরের একাংশ অবশ থাকায় বাধা দিতে পারেননি। দু’একজন নারী অভিযোগ করার পর অনেকে বলছিলেন এটি অসুস্থ অবস্থায় ওইসব নারীর হেলুসিনেশন বা ভ্রান্তি। কিন্তু একে একে ২১ জন নারী একই অভিযোগ করার পর বিষয়টি সবার নজরে আসে। কেননা, ২১ জন নারীর কেউ কাউকে চিনেন না।

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে এই লেখায় ক্লিক করে জানুন এবং  তুলে ধরুন। নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান। আর আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে রয়েছে অনেক মজার মজার সব ভিডিও সহ আরো অনেক মজার মজার টিপস তাই এগুলো থেকে বঞ্চিত হতে না চাইলে এক্ষনি আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে আসুন। এবং আপনি এখন থেকে প্রবাস জীবনে আমাদের সাইটের মাধ্যমে আপনার যেকোনো বেক্তিগত জিনিসের ক্রয়/বিক্রয় সহ সকল ধরনের বিজ্ঞাপন ফ্রিতে দিতে পাড়বেন। ]]

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

সুইডেনে প্রথমবারে মত আযান প্রচারিত হবে
পবিত্র করার নামে ছাত্রীদের ধর্ষণ
বিমানের টয়লেটে বিপজ্জনক মুহূর্ত কাটালেন এক নারী যাত্রী!
জোরদার হচ্ছে বাংলাদেশ-মেক্সিকো দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক
লায়লার অভিযোগ মিথ্যা : গ্রীসের ইমাম হাফেজ মাওলানা খালিদ বিননূরী
ভূয়া রিফিউজি ! কোরিয়াতে হুমকির মুখে বাংলাদেশের শ্রমবাজার

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 153 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 0 comments… add one now }

Leave a Comment