ইতালির ফ্যামিলি ভিসা জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে কিভাবে কি করবেন বিস্তারিত সকল তথ্য!!

by Lesar on আগস্ট ২, ২০১৪পোস্ট টি ৩,৩৬৮ বার পড়া হয়েছে in ইতালির ও ইউরোপের ভিসাগত পরামর্শ

প্রিয় আমিওপারির সম্মানিত পাঠক বৃন্দ শুরুতেই মহান সৃষ্টি কর্তার নাম নিয়ে শুরু করছি। আশা করি আপনারা সবাই আল্লাহ্‌র অশেষ রহমতে ভালোই আছেন। আমাদের কাছে অনেকেই একটি বিষয় নিয়ে অনুরোধ করেছেন? যে, ফ্যামিলি ভিসার জন্য ভিএফএস গ্লোবাল বাংলাদেশে ইতালি ভিসা আবেদন কেন্দ্রে কিভাবে আবেদন করতে হয়? বাঁ কি কি সার্টিফিকেট বা ডকুমেন্টস প্রয়োজন? ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে। আর তাই আপনাদের অনুরোধে আজ আমরা এর বিস্তারিত আপনাদের কাছে তুলে ধরছি।

ইতালি থেকে নুল্লা অস্তা হাতে পেয়ে কাগজ দেশে পাঠানোর আগে ও পরে আপনাদের যা যা করতে হবে তার বিস্তারিত এখানে তুলে ধরা হল।

ফ্যামিলি ভিসার ক্ষেত্রে সবার প্রথমে আপনাকে জানতে হবে ভিসার মূল্য (VISA FEES) সম্পর্কে।

এর জন্য আপনাকে নিন্মের ফি প্রদান করতে হবে।

Visa Application     12180 Taka (BDT)

VFS Global Service Charge    1600  Taka (BDT)

Bank draft     230 Taka (BDT)

এরপর যে সকল সার্টিফিকেট বা ডকুমেন্টস গুলো লাগবে? বাংলাদেশের ক্ষেত্রে!

* আবেদনকারীকে ভিসা আবেদনের সম্পূর্ণ ফর্ম পূরণ করতে হবে এবং নিজের সাক্ষ্যর সহ, বাচ্চাদের ক্ষেত্রে স্থানীও অভিভাক সাক্ষ্যর দিতে পারবে।

* ডিজিটাল পাসপোর্টে যদি কোন সংশোধন করা হয় সেই ক্ষেত্রে আপনার বার্থ সার্টিফিকেট, স্কুল সার্টিফিকেট এবং ভোটার আইডি সহ আলাদা করে একটি আবেদন পত্রে উল্লেখ করে দিতে হবে।

* নিজের নাম, পিতার নাম ও জন্ম তারিখ প্রতিটি সার্টিফিকেটেই এক রকম নাম থাকতে হবে।

* ফ্যামিলি সার্টিফিকেট নির্দিষ্ট এলাকার চেয়ারম্যান অথবা কমিশনার এর কাছ থেকে করাতে হবে। তবে দূতাবাস দ্বারা নির্দেশিত ফরম্যাট অনুযায়ী ফামিল্যি সার্টিফিকেট তৈরি করতে হবে (নিচে এর একটি উদাহরণ দেয়া হয়েছে)

* নিকাহ নামা না মেরিজ সার্টিফিকেটে অবশ্যই বিবাহের দিন ও রেজিস্ট্রেশন নাম্বার কলাম আকারে উল্লেখ থাকতে হবে যেমনঃ ১২ কলামের বা ২৪ কলামের এবং পেজ নাম্বার, ভলিউম নাম্বার, সিরিয়াল নাম্বার ইত্যাদি বিস্তারিত উল্লেখ থাকতে হবে এবং

* নিকাহ নামা বা ম্যারেজ সার্টিফিকেট অবশ্যই বাংলা ও ইংরেজিতে হতে হবে এবং অরিজিনাল কপি হতে হবে সাথে বিয়ের ছবি।

* দ্বিতীয় বিয়ের ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে অবশ্যই

  • ফ্যামিলি সার্টিফিকেটে (প্রথম বিবাহের)
  • ম্যারেজ সার্টিফিকেটে (প্রথম বিবাহের)
  • নিকাহ নামা বাংলায় ও ইংরেজিতে (প্রথম বিবাহের)
  • ডিভোর্স সার্টিফিকেট
  • বালাম নামা বাংলায় ও ইংরেজিতে ( কাজি অফিস থেকে অরিজিনাল কপি)

* শুধু স্ত্রী/স্বামীর জন্য ভিসা আবেদন এর ক্ষেত্রে তার পাসপোর্টে সীল থাকতে হবে যে, সে বিয়ের সময় দেশে উপস্থিত ছিলো।

* সকল বাংলাদেশি সার্টিফিকেট স্বরাষ্ট্র – মন্ত্রণালয় থেকে সত্যায়িত করিয়ে নিতে হবে।

* যদি টেলিফোনে বিয়ে হয়ে থাকে সেই ক্ষেত্রে টেলিফোনের ম্যারেজ সার্টিফিকেট নিতে হবে কাজি অফিস থেকে সাথে বিয়ের ছবি।

* দেশে টেলিফোনে বিয়ের সময় উপস্থিত ছিলেন দুইজন সাক্ষীর ভোটার আইডি অথবা পাসপোর্ট এর ফটোকপি।

* অরিজিনাল সার্টিফিকেট এর উপর তরল পানিও বা ফ্লুইদ দিয়ে মুছা বা কলম দিয়ে কাটাকাটি করা যাবেনা? এবং আবেদনের দিন সকল অরিজিনাল সার্টিফিকেট সহ নিজের অরিজিনাল ভোটার আইডি ও স্কুল সার্টিফিকেট সাথে রাখতে হবে এবং এর ফটোকপি সহ।

 

এবার আমরা জানবো ইতালি থেকে আপনার যে সকল সার্টিফিকেট বা ডকুমেন্টস গুলো দেশে পাঠাতে হবে? ইতালি থেকে যেগুলো পাঠাতে হবে!

* পাসপোর্ট এর প্রতিটি পেজ এর ফটোকপি সত্যায়িত করা, যদি পাসপোর্ট হারানো হিয়ে থাকে সেই ক্ষেত্রে ইতালিয়ান থানায় জিডির কপি অথবা ইতালিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস রোম/মিলানো থেকে লস পাসপোর্ট এর সার্টিফিকেট।

* সৌজরনো এর ফটোকপি ইতালিয়ান কমুনে অথবা থানা থেকে সত্যায়িত করাতে হবে এবং অবশ্যই সৌজরনের মেয়াদ থাকতে হবে।

* যদি টেলিফোনে বিয়ে হয়ে থাকে সেই ক্ষেত্রে ইতালিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস রোম/মিলানো থেকে একটি টেলিফোনে বিয়ের সার্টিফিকেট নিতে হবে।

* ইতালিতে থেকে টেলিফোনে বিয়ে করেছে স্বামী/স্ত্রীর বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে লিখিত একটি ডিক্লারেশন সাথে দুই সাক্ষী সেখানে উপস্থিত ছিলেন তার বর্ণনা।

* এবং টেলিফোনে বিয়ের সময় সাক্ষী ছিলেন সেই দুইজনের সাক্ষ্যর সহ তাদের পাসপোর্ট ও সৌজরনো এর ফটোকপি ইতালিয়ান কমুনে থেকে সত্যায়িত করাতে হবে।

* এবং সব শেষে নুল্লা অস্তার অরিজিনাল কপি।

উপরে আমরা জানলাম ফ্যামিলি ভিসার ক্ষেত্রে কি কি সার্টিফিকেট বা ডকুমেন্টস  গুলো লাগবে এবার আমরা নিচে দেখবো বিভিন্ন সার্টিফিকেট গুলো কোন ফরম্যাটে করাতে হবে। এখানে যেভাবে দেখানো হয়েছে একমাত্র এই ফরম্যাটের সার্টিফিকেট গুলোই ভিএফএস একসেপ্ট করে। তাহলে আসুন এক নজরে দেখে নেই সার্টিফিকেট গুলো কেমন হতে হবে?

ফ্যামিলি সার্টিফিকেট     

ম্যারেজ সার্টিফিকেট

টেলিফোনে বিয়ের ক্ষেত্রে টেলিফোন ম্যারেজ সার্টিফিকেট

ডিক্লারেশন/Declaration

ওকে আশা করী আপনারা উপরের বিষয় গুলো থেকে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। বন্ধুরা আমাদের আগামী পর্বে আমরা দেখবো কিভাবে ফ্যামিলি ভিসার জন্য ভিএফএস গ্লোবাল বাংলাদেশে ইতালি ভিসা আবেদন কেন্দ্রে অনলাইনে ভিসার জন্য এপয়েন্টমেন্ট নিতে হয়। সেই পর্যন্ত আমাদের সাথেই থাকুন আমাদের পরিবারের একজন সদস্য হয়ে।

এবং প্রবাসে আপনাদের যে কোন প্রকার সমস্যা ও তার সমাধানের জন্য আপনারা সরাসরি আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আমাদের সাথে যোগাযোগ করার বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন। 

InstaForex *****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

ইতালিতে ২০১৩ সিজনাল ভিসায় বাংলাদেশ বাদ পরার কারন জানালেন ইতালি রাষ্ট্রদূত ‘শাহাদাত হোসেন’
বিনা ভিসাতে বিদেশ ভ্রমন!
ইতালির ফ্যামিলি ভিসা নিয়ে চলছে নানা ধরণের প্রতারণা, দালাল হতে সাবধান!!
সতর্কবার্তা,ইতালিতে যারা ব্যবসায়ী কাগজে ফ্যামিলি নিয়ে আসার জন্য ভিএফএসে ফাইল জমা দিয়েছেন বা দিবেন? ত...
ইতালিতে আমার ভাই,বোন,আত্মীয়দের জন্য কিভাবে টুরিস্ট ভিসায় আবেদন করবো?কি কি লাগবে?সবার জেনে রাখা উচিত।
আমার পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তবে এটির ইউ.এস ভিসা এখনো বৈধ আছে।আমাকে কি একটি নতুন ভিসার জন্য আব...

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1149 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 3 comments… read them below or add one }

nil আগস্ট ৩, ২০১৪ at ৭:৩৮ পুর্বাহ্ন

Bd passport er sob page koi theke attested korte hobe janale khusho hotam.

Reply

Lesar আগস্ট ৩, ২০১৪ at ৬:২১ অপরাহ্ণ

rome or milano embassy theke

Reply

Taherul Islam সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৪ at ১০:০৯ অপরাহ্ণ

Salve, sono un cittadino italiano di origine del Bangladesh. Un mese fa mi sono sposato in Bangladesh e ora come devo procedere per portare la mia moglie in Italia? Per favore mi date tutte le informazioni? Grazie.

Reply

Leave a Comment