অস্ট্রেলিয়ায় ২০১৪-১৫ সালের মাইগ্রেশন প্রোগ্রামে বাংলাদেশীদের জন্য থাকছে ব্যপক সুযোগ!

by Lesar on আগস্ট ১৫, ২০১৪পোস্ট টি ৪,৮১৩ বার পড়া হয়েছে in ইউরোপ ও অন্যান্য দেশের ইম্মিগ্রেশন তথ্য

অস্ট্রেলিয়াতে ২০১৪-১৫ সালের মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম শুরু হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার ইমিগ্রেশন ও বর্ডার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী স্কট মরিসন গত ১৩ মে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মধ্য দিয়ে এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ক্রমবর্ধমান বাণিজ্যিক ভিসা কার্যক্রম এই ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবে।

মাইগ্রেশন প্রোগ্রামটি চালু করা প্রসঙ্গে স্কট মরিসন বলেন, আমাদের সরকার এই মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের মাধ্যমে নিশ্চিত করতে চায় যে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী এবং দক্ষতামুলক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আমরা একটি অগ্রসরমান জনগোষ্ঠী তৈরি করতে চাই। এই মাইগ্রেশন প্রোগ্রামটির বাজেটের ক্ষেত্রে ৬৮ শতাংশ বরাদ্দ করা হয়েছে, দক্ষতামূলক কর্মী এবং শ্রমবাজারের জন্য শ্রমিকের নিয়োগ জন্য স্পন্সরড ভিসা। শ্রমবাজারের শ্রমিক নিয়োগের ক্ষেত্রে যেসব অগ্রাধিকারমূলক সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে তারমধ্যে রয়েছে মাইগ্রেশনের পর কাজ খুজে দেওয়ার ক্ষেত্রে সহযোগিতা করা। তবে এই ব্যবস্থায় অবশ্যই অস্ট্রেলিয়ার স্থানীয় কর্মীদের মূল বিবেচ্য হিসেবে গণ্য করা হবে অর্থাৎ এটি যেন তাদের কাজের কোন ক্ষতি না করে সেদিকে লক্ষ্য রাখা হবে।

২০১৪-১৫ মাইগ্রেশন প্রোগ্রামে মোট মাইগ্রেট করা হবে ১৯০০০০। তারমধ্যে ১২৮৫৫০টি হবে দক্ষতামুলক মাইগ্রেশন, ৬০৮৮৫টি হবে ফ্যামিলি মাইগ্রেশন এবং ৫৬৫টি মাইগ্রেশন ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বিশেষ বিবেচনার ক্ষেত্রে। বাকী ৪০০০ মাইগ্রেশনকে রাখা হয়েছে পারিবারিক ধারাপ্রবাহ বজায় রাখার জন্য। এই ব্যবস্থাটি বিগত মাইগ্রেশন ব্যবস্থাপনার একটি বিস্তৃত রূপ এটি আসলে বিভিন্ন সামুদ্রিক পথে অবৈধ পথে অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশাধিকারকে বৈধ করার একটি উপায়। এরফলে অস্ট্রেলিয়া সরকারের ২৬৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সাশ্রয় হবে। তবে এই ব্যবস্থাটির মাধ্যমে ভবিষ্যতের এই ধরনের প্রেক্ষাপটকে জোরালোভাবে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। আপনি কিভাবে এই ইমিগ্রেশন প্রোগ্রামে আবেদন করবেন? (কিভাবে আবেদন করবেন সেই তথ্য জানার আগে আপনাকে এই লেখাটির বাকি অংশ আনলক করতে হবে। কিভাবে আনলক করবেন এই লেখার নিচে বিস্তারিত দেওয়া রয়েছে।)

InstaForex *****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

সেঞ্জেন ভুক্ত ইউরোপের যেকোনো দেশের পাসপোর্ট,রেসিডেন্স কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি ডকুমেন্টস গুল...
সেঞ্জেন ভুক্ত ইউরোপের দেশ গুলোর বিভিন্ন ডকুমেন্টস গুলো চিনে রাখুন।আজকের বিষয় DENMARK
আমি ইতালিয়ান বা ইউরোপের পাসপোর্ট ধারী! আমি কি আমার এই পাসপোর্ট দিয়ে Australia যেতে পারবো?
ডেনমার্কে গ্রীন কার্ডে নতুন নিয়ম প্রযোজ্য হবে ২০১৫ সাল থেকে।
১০ ধরনের ভারতীয় ভিসার আবেদনে বিশেষ ছাড়
আমেরিকায় ১ কোটি ১০ লক্ষ অবৈধদের মধ্যে ৫০ লাখ বৈধ করা হলো ৬০ লাখকে দেশে ফিরে যাওয়ার আহব্বান

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1165 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 2 comments… read them below or add one }

md.ashraf siddiquee আগস্ট ২১, ২০১৪ at ৫:০৩ পুর্বাহ্ন

very interesting. but lock why?

Reply

MD Saeam Hussan এপ্রিল ৬, ২০১৫ at ৫:০০ অপরাহ্ণ

অষ্টেলিয়া মাইগ্রেশন ২০১৪-২০১৫০প্রোগ্রাম সম্পর্কে একটু বিস্তারিত জানাবেন ভাইয়া

Reply

Leave a Comment