ধাপে ধাপে চেক রিপাবলিকে উচ্চ শিক্ষার জন্য আবেদনের বিস্তারিত তথ্য।

by Lesar on জানুয়ারী ১২, ২০১৬পোস্ট টি ২,২৩০ বার পড়া হয়েছে in ইউরোপ ও আন্নান দেশে উচ্চ শিক্ষা

শাওন নোমানঃ চেক রিপাবলিক সেন্ট্রাল ইউরোপের একটি দেশ। আয়তন ৭৮৮৬৬ বর্গ কিলোমিটার। এর চারপাশের দেশ গুলি হল- অস্ট্রিয়া, জার্মানি, পোল্যান্ড এবং স্লোভাকিয়া। দেশটি ২০০৪ সালে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অধিভুক্ত হয় এবং ২০০৭ সালে সেনজেন স্টেইটে নিজেকে অন্তুরভুক্ত করে। তাঁদের মাথাপিছু আয় $২৭,৬০০। উচ্ছ শিক্ষার জন্য চেক হতে পারে আপনার আদর্শ স্থান এখানে অনেক পুরাতন রেপুটেড ইউনিভার্সিটি আছে যেগুলি ওয়ার্ল্ড রাঙ্কিং এ এগিয়ে আছে। আশ্চর্য ব্যাপার হল চেকের পাবলিক এবং প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির কোয়ালিটি, টিঊসন ফি একি রকম। ইউনিভার্সিটিতে চেক এবং ইংলিশ দুই মিডিয়ামে ব্যাচেলর, মাস্টার এবং পিএইচডি প্রোগ্রাম চালু আছে।
বছরে ২ টা সেশানে আপ্পলাই করা যায় ডিসেম্বর এবং মে। সাধারনত বাংলাদেশী ছাত্রদের এই দেশে খুব বেশি একটা দেখা যায় না। এর প্রধান কারন হল উচ্ছ টিউশন ফি প্রতি বছরে ২০০০-৩৫০০ ইউরো পর্যন্ত হয়ে থাকে।

চেক ইউনিভার্সিটিতে ইংলিশ মিডিয়ামে আবেদন করতে কি কি লাগবে ?
(ব্যাচেলর, মাস্টার এর জন্য)

1. অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন।
2. অ্যাপ্লিকেশান ফি ২০-৮০ ইউরো।
3. আপনার ২ কপি ছবি ( সাইজ ইউনিভার্সিটি বলে দিবে)।
4. এসএসসি এইচএসসি, ব্যাচেলরের সার্টিফিকেট ট্রান্সকিপ্টের নোটারি কপি। (কিছু বিশ্ববিদ্যালয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সত্যায়িত কপি চায়)।
5. ইউরোপাস ফরম্যাটের সি ভি।
6. মটিভেসান লেটার।
7. আইইএলটিএস স্কোর ৬-৬.৫ (প্রিভিয়াস স্টাডি মিডিয়াম অব ইন্সট্রাকসান ইংলিশ হলে আইইএলটিএস লাগবে না, সেক্ষেত্রে আপনার ইউনিভার্সিটির রেজিস্টার বা এক্সাম কন্ট্রোলারের নিকট থেকে এই সার্টিফিকেট নিতে হবে এবং তা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সত্যায়িত করতে হবে)
8. ওয়ার্ক এক্সপেরিয়ান্স যদি থাকে(ইন্টারনসিপের সার্টিফিকেট দিতে পারেন)।
9. ২ টি রেকমেনডেসান লেটার।
10. পাসপোর্টের ফটোকপি।

উপরোক্ত ডকুমেন্টের হার্ড কপি সমূহ আপনাকে ইউনিভার্সিটির  এড্রেসে ডেডলাইন ক্রস করার আগে পাঁঠাতে হবে। তারপর আপনাকে এনট্রান্স টেস্ট অথবা স্কাইপ ইন্টারভিউ দিতে হবে। এনট্রান্স টেস্ট/স্কাইপ ইন্টারভিউ মুলত একাডেমিক বিষয়, থিসিস/ ইন্টারনসিপের অভিজ্ঞতা, সিভি,মটিভেসান লেটার ইত্যাদি থেকে প্রশ্ন হয়ে থাকে। এটা একেবারে সহজ পরীক্ষা। স্কাইপ ইন্টারভিউয়ে কি কি প্রশ্ন করতে পারে তা জানতে এখানে ক্লিক করে দেখুন   ৭-১০ দিন পর ইউনিভার্সিটি আপনাকে জানাবে আপনি উত্তীর্ণ হয়ছেন কিনা।

উত্তীর্ণ হলে ইউনিভার্সিটি আপনাকে ইমেইলে অফার লেটার পাঠাবে এবং তাদের ১ম বর্ষ বা ১ম সেমিস্টারের টিউসন ফি অগ্রিম দিতে হবে। যদি আপনার ভিসা রিফিউসড হয় তাহলে আপনার টাকা রিফানডেবল হবে। টিউসন ফি প্রদানের পর উনিভারসিটি আপনার হোমে এড্রেসে এম্বাসি ফেইস করার জন্য ফাইনাল লেটার হার্ড কপি পাঠাবে। মনে রাখতে হবে ক্লাস শুরু হওয়ার ৩ মাস আগে ভিসার জন্য আবেদন করতে হয়। কারন চেকের ভিসা প্রসেস টাইম ২.৫ মাস লাগে। অন্নতায় আপনাকে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হবে।

ভিসা রিকুয়ারমেন্টঃ
1. অরিজিনাল পাসপোর্ট।

2. ২ কপি ছবি।

3. পুরুনকৃত লঙ টার্ম ভিসা এপ্পলিকেসান ফর্ম। ফর্মটি এই  http://www.mzv.cz/public/45/84/57/525242_423344_zov_EN.pdf    ওয়েবসাইট হতে ডাউনলোড করুন।  (কিভাবে এই ভিসা ফর্ম পুরুন করবেন তা জানতে এখানে ক্লিক করে দেখুন।

4. এপ্লিকেন্টের নামে ৬২০০ ইউরো –>৬,৫০,০০০ টাকার ব্যাংক ব্যালেন্স দেখাতে হবে। ( নট ব্লক অ্যাকাউন্ট) ব্যাংক সার্টিফিকেট এবং লাস্ট ৩ মাসের স্টেইটমেন্ট ব্যাংক ম্যানেজার কতৃক স্বাক্ষরিত হতে হবে। (পিতা-মাতা বা ভাই-বোনের ব্যাংক সল্ভেন্সি গ্রহণযোগ্য নয়)।

5. এপ্লিকেন্টের নামে ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড লাগবেই। ( ব্যাংক সার্টিফিকেট/স্টেটমেন্ট এবং ক্রেডিট কার্ড একি ব্যাংকের হতে হবে)আপনি ইচ্ছা করলে ৫০,০০০ টাকার এফডিআর করে এবং তা লিয়েন করে ব্যাংক থেকে একটা ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করাতে পারেন। পরবর্তীতে ভিসা হবার পর ক্রেডিট কার্ড সারেন্ডার করে ৫০,০০০ টাকা+আপনার এফডিআর বেনিফিট পেয়ে যাবেন।

6. অফার লেটারের অরিজিনাল কপি।

7. একমোডেসানের অরিজিনাল হার্ড কপি (অনেক সময় ইউনিভার্সিটির ডরমেটরিতে সিট পাওয়া যায় না সো আপনাকে বাহিরে কথাও মিনিমাম ০৬ মাসের জন্য একমোডেসানের বেবস্থা করতে হবে আর এর জন্য আপনাকে ২০-১৫০ ইউরো দিতে হবে, যেটা নন রিফান্ডেবল আর অবশ্যই ইমেইলে অফার লেটার পাবার পর পরই একমোডেসান কনফার্ম করে নিবেন)।

8. অরিজিনাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট(অরিজিনাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটটি নোটারাইজ করে নিবেন)।

9. ব্যাংক সার্টিফিকেটও স্টেইটমেন্ট, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট চেক ল্যাঙ্গুয়েজে ট্রান্সলেট করতে হবে। এটা বাংলাদেশ থেকে না করানো ভাল ইন্ডিয়াতে করাবেন ২ ঘণ্টার ভিতরে পেয়ে যাবেন। প্রতি পাতা ৩০০ রুপি নিবে।

(আপনাদের সুবিধার জন্য ইন্ডিয়ার একজন চেকল্যাঙ্গুয়েজ ট্রান্সলেটর এর তথ্য দিলাম ওর কাছে থেকে ট্রান্সলেট করিয়ে নিতে পারবেন।  নামঃ দীপক। মোবাইলঃ৯৮১৮৩৭৫২৫৬)

10. ভিসা ফি ৭৮০০ রুপি, এটেসটেসান ফি ৯০০ রুপি টোটাল ৩ পেইজ ২৭০০ রুপি। সকল ফী ক্যাশ দিতে হবে।

বিঃদ্রঃ যে সমস্ত এপ্পলিকেন্ট ইতিমধ্যে বাংলাদেশের বাহিরে এক বা একাধিক রাষ্ট্রে ০৬ মাসের অধিক ছিলেন, তাঁরা অবশ্যই ঐ রাষ্ট্র গুলিথেকে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নিতে হবে, যা এম্বাসিতে সাবমিট করতে হয়। এবং আপনার দেশের বাহিরে থাকার উদ্দেশ্য কি ছিল, তার প্রমান পত্র দেখাতে হবে। যদি আপনার দেশের বাহিরে থাকার উদ্দেশ্য যদি পড়াশুনা হয়, তাহলে সেখানের কোর্স কমপ্লিসান সার্টিফিকেট এর ফটোকপি সাবমিট করতে হবে।

পরামর্শঃ যদি উপরোক্ত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ও কোর্স কমপ্লিসান সার্টিফিকেট এর একটিও যদি আপনার কাছে না থাকে। তাহলে চেক রিপাবলিকে আবেদন না করাই উত্তম। কারন এগুলি ছাড়া ভিসার জন্য আবেদন করলে ওরা আপনার ভিসা রিফিউজ করবে এটা কনফার্ম।

Visa.czech@gmail.com   এই ইমেইল এড্রেসে ভিসা ইন্টারভিউ এপোয়েন্টমেন্ট নিতে হবে। উপরোক্ত এই ডকুমেন্ট গুলি ছারা আর কোন ডকুমেন্ট লাগবে না। হেলথ ইনসিওরেন্স ভিসা হবার পর লাগবে। মেডিকেল সার্টিফিকেট লাগবে না। ভিসা ইন্টারভিউর সময় আপনার সকল মূল সার্টিফিকেট সাতে রাখবেন যদিও ওরা এসব দেখতে চায় না এবং সার্টিফিকেটের মুল অথবা ফটোকপি জমাও নেয় না। যদি আপনি মোটামুটি ভাল পাবলিক/প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি থেকে অফার লেটার পান এবং ভিসা অফিসারের সব প্রশ্নের ঠিক উত্তর দিতে পারেন তাহলে ভিসা পাবেন কনফার্ম। ভিসা ইন্টারভিউর ২ মাসের মধ্যে এম্বাসির ডিসিসান পাবেন। আর ইন্ডিয়ায় একবার গেলেই চলবে ভিসা হলে কুরিয়ারের মাধ্যমে ভিসা কালেক্ট করা যাবে।

ভিসা ইন্টারভিউ প্রশ্ন

চেকের ভিসা ইন্টারভিউ একটু ডিফ্রেন্ট। ভিসা অফিসার প্রায় ৩০-৪০ মিনিটের ইন্টারভিউ নিবে, ভিসা অফিসার তাঁর ল্যাপটপের উল্লেখিত প্রশ্ন থেকে আপনাকে জিজ্ঞেস করবে, আপনাকে একটি প্রশ্ন জিজ্ঞাসার পর আপনার উত্তর টাইপ করবেন টাইপ শেষ হলে আপনাকে ২য় প্রশ্ন করবে। মনে রাখবেন আপনার স্পিকিং টা যাতে স্পষ্ট হয়, অন্নতায় ভিসা অফিসার আপনার উত্তর কাগজে লিখতে বলবে, যা আপনার ভিসা ইন্টারভিউইয়ের পারফর্মেন্স নষ্ট করবে।

খণ্ডকালীন চাকুরীর সুযোগ ও সহজলভ্যতাঃ

ইউরোপিয়ান নিয়ম অনুযায়ী ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টরা সপ্তাহে ২০ ঘণ্টা কাজের সুযোগ পাবেন। কিন্তু আপনি ইচ্ছা করলে চেক রিপাবলিকে সপ্তাহে ২০ ঘণ্টার অধিক কাজ করতে পারবেন। এতে আপনার ভিসা বা অন্য কোনকিছুর সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না। কারন ছাত্ররা কত ঘণ্টা কাজ করছে তার কোন হিসাব রাখা হয় না এবং চেক সরকার ছাত্রদের আয়ের উপর ট্যাক্স ফ্রি করেছে। যার ফলে চেক পুলিশের ছাত্রদের কাজের সময়বিধির উপর কোন প্রকার তদারকি করে না। তবে মনে রাখবেন ক্লাস কিন্তু নিয়মিত করতে হবে। ক্লাস নিয়মিত করে সপ্তাহে ৪০ ঘণ্টার অধিক করলেও সমস্যা নেই।

আপনাদের সবার একটি কমন প্রশ্ন আছে, চেক রিপাবলিকে কি খণ্ডকালীন চাকুরী করে টিউসান, লিভিং কস্ট মেনেইজ করা সম্ভব?

এর উত্তরে আমি বলব সম্ভব!! তবে ব্যাচেলরস্টাডি প্রোগ্রামের জন্য  কিছু টাকা দেশ থেকে আনতে হবে।

প্রথমত আপনাকে কম টিউসান ফী সম্পন্ন চেক বিশ্ববিদ্যালয় খুঁজতে হবে। যেটা প্রতি বছরে ২০০০-২৫০০ ইউরো পর্যন্ত হতে হবে।

দ্বিতীয়ত আমারা জানি যে, চেক রিপাবলিকে এডমিসানের জন্য প্রথম বছরের টাকা অগ্রিম পাঠাতে হয়। যদি আপনার টোটাল টিউসান ফী  ৪৫০০ হয় আপনাকে পাঠাতে হবে ২২৫০ ইউরো। যার মানে হচ্ছে চেকে গিয়ে আপনাকে ২২৫০ ইউরো মেনেইজ করতে হবে। আপনার অবশিষ্ট টিউসান ফী ৪-৬ কিস্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়কে দিতে পারবেন। (হিসাবটি মাস্টার স্টাডি প্রোগ্রামের জন্য) এবার আশা যাক মূল কথায়। আসলে চেক রিপাবলিকে খণ্ডকালীন চাকুরীর সুযোগ ও সহজলভ্যতা কেমন? প্রতি ঘণ্টায় কত টাকা আয় করা সম্ভব?

এক কথায় বলতে পারি বর্তমানে খণ্ডকালীন চাকুরীর সুযোগ ও সহজলভ্যতার দিক থেকে চেক রিপাবলিক অনেক ভাল অবস্থানে আছে। প্রাঘ, ব্র্নো তে নতুন পুরাতন বাঙালী কেউই জব ছারা নেই। এমনকি প্রাঘ, ব্র্নো তে পড়াশুনা করতে আসছে কিন্তু ০৩ সপ্তাহের মধ্যে জব পায় নাই। এমন লোক একজনও নাই। এটা আমার কথা নয়, এখানের পুরাতন নতুন ভাইদের কথা এবং তাই বাস্তব।

চেক রিপাবলিকে বাঙালি,ইন্ডিয়ান, পাকিস্তানি, ভিয়েত্নামি, ইসরাইলি সহ বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট বা মিনি মার্কেটে কাজ পাবেন। প্রতি ঘণ্টায় ৬৫-৭৫ ক্রাউন করে মুজুরি পাবেন।

নোটঃ প্রাঘ, ব্র্নো ব্যাতিত চেক রিপাবলিকের অন্যান্য সিটি গুলিতে খণ্ডকালীন চাকুরীর সুযোগ ও সহজলভ্যতা তেমন নেই।

InstaForex *****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

লন্ডনে ছাত্রদের ক্রাইসিস! ৬০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল বিপাকে বাংলাদেশি সহ ৫০ হাজার বিদেশ...
সুইডেনে সুইডিশ ইন্সিটিউট স্কলারশিপের বিস্তারিত তথ্য। সুইডেনে উচ্চ শিক্ষা করতে চান? উল্লেখ্যঃস্কলারশি...
বিদেশে উচ্চশিক্ষাঃ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। খুব দরকারি ভাল করে পড়ুন।
কেমন আছেন সাইপ্রাসে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা?
বিদেশে উচ্চশিক্ষা ও কিছু চিরন্তন বাস্তবতা
লিথুয়ানিয়ায় ঊচ্চ শিক্ষার ভিসা পেতে কিভাবে কি করবেন? জেনে নিং বিস্তারিত।(ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও সেনজেনভুক...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1163 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 1 comment… read it below or add one }

Muhibul Haque জানুয়ারী ১৯, ২০১৬ at ১০:০৭ পুর্বাহ্ন

Really informative post. Hope this will help me a lot for studying in Czech University :)

Reply

Leave a Comment