অস্ট্রেলিয়ায় আপনার শিশুকে বিনামূল্যে মায়ের ভাষায় লিখতে পড়তে ও বলতে পারায় একাডেমি সবাইকে এ সুযোগ দিচ্ছে।আগ্রহীদের এখনই আবেদন করার অনুরোধ করা হল।

by Lesar on জানুয়ারী ২৪, ২০১৬পোস্ট টি ৩৫২ বার পড়া হয়েছে in ইউরোপ ও আন্নান দেশে উচ্চ শিক্ষা

মাতৃভাষা শিক্ষা আপনার সন্তানদের মৌলিক অধিকার! বাংলা একাডেমির স্কুল গুলো নিউ সাউথ ওয়েলস এর শিক্ষাক্রম অনুযায়ী ৩০ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে। শিক্ষামন্ত্রী গত বছর থেকে আমাদের এ শিক্ষাক্রমে নূতন সাটিফিকেট যুক্ত করেছেন। এখন এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ছাত্র-ছাত্রীদের এ সার্টিফিকেট নিজ নিজ স্কুলে মূল্যায়িত হবে। কিন্ডারগার্টেন থেকে ইয়ার ৬ পর্যন্ত মূল্যায়ন  ২০১৫ থেকে বছর শুরু হয়েছে। বিনামূল্যে কোর্সটি চালু রেখে মায়ের ভাষায় লিখতে পড়তে ও বলতে পারায় একাডেমি সবাইকে এ সুযোগ দিচ্ছে । আগ্রহীদের এখনই আবেদন করার অনুরোধ করা হল।

বাংলা একাডেমি অস্ট্রেলিয়ার স্কুলগুলোয় আপনার ছেলে মেয়েকে পাঠাতে পারেন নিশ্চিন্তে। এখানে যত্ন করে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে বাংলায় লিখতে, পড়তে এবং কথা বলতে সাহায্য করেন একাডেমির শিক্ষকবৃন্দ। প্রায় প্রত্যেক শিক্ষক সিডনি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভাষা শিক্ষার ওপর শিক্ষা নিয়েছেন। গত ১০ বছর যাবত এ শিক্ষাক্রমে একবারের জন্যও রাজনৈতিক বা অসামাজিক কাজ স্থান পায়নি। স্কুল কার্যক্রম প্রতিনিয়ত সমৃদ্ধতর হচ্ছে। একাডেমির অনেক অভিভাবক মনে করেন, বাংলা একাডেমির স্কুলের ছেলে মেয়েরা এ স্কুলে আসার কারণে তাদের প্রথাগত স্কুলের কার্যক্রম এবং পারিবারিক যোগাযোগ আরও সুদৃঢ় হচ্ছে। বাংলা শেখার পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা ছবি আঁকা, সংগীত, আবৃত্তি, বিতর্ক, উপস্থিত বক্তৃতা, নাটক এবং জীবন যাপনের বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা নিচ্ছে।

২০১৫ সালে ব্ল্যাকটাউনের শিক্ষার্থী ইমরান সারওয়ার ‘Creative writing’ এবং লাকেম্বার শিক্ষার্থী আফিফা সুলতানা ‘Innovation’ এর জন্য বাংলা একাডেমির ‘গ্রান্ট এওয়ার্ড’ পেয়েছে। এ ছাড়াও ২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাসে প্রথমবারের মত বাংলা ভাষার ওপর রাজ্য সরকারের একমাত্র ‘মিনিস্টার এওয়ার্ড’ পেয়েছে বাংলা একাডেমির এপিং কেন্দ্রের শিক্ষার্থী সারা হোসেন। এ রকম একটি শিক্ষামূলক স্কুল আপনার সহযোগিতা পেলে আরও এগিয়ে যেতে পারে বলে একাডেমি বিশ্বাস করে। শিক্ষায় অদূরদর্শিতা সহ নানা কারণে অনেক মানুষ আপনাকে সঠিক তথ্য নাও দিতে পারেন। তাই অন্যের মুখাপেক্ষী না হয়ে নিজে সিদ্ধান্ত নিন। মনে রাখবেন, আপনার সন্তান একান্ত আপনার। ওদের ভাল-মন্দ নির্ভর করে আপনার একটি সিদ্ধান্তের ওপর। আমাদের প্রত্যাশা বাংলা ভাষার অমির বারতা ছড়িয়ে পড়ুক বিশ্বজুড়ে।

Epping, Blacktown, Ingleburn এবং Lakemba এ চারটি কেন্দ্রে একাডেমি শিক্ষা কার্যক্রম আরম্ভ করেছে। এর মাঝে মুল শাখা এপিং এর সাথে দূরত্বের কারনে ইঙ্গেলবার্ন শাখাটি সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। বাকী শাখা গুলো চলছে যথা নিয়মে। সিডনির বিভিন্ন স্থানীয় এলাকায় বাংলায় শিক্ষা সেবা দেবার লক্ষ্যে বাংলা একাডেমি তৈরী করেছে বাংলা ভাষা বলতে, পড়তে এবং লিখতে পারার জন্য ‘Community Langauge School Program‘। প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়েছিল এপিং এ ২০০৬ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে।

যেখানে বাঙালীর বসবাস খুবই কম, সে অঞ্চলে জন্ম নিয়েও বাংলা একাডেমি অস্ট্রেলিয়া কাজ করছে প্রতিটি বাঙালীর জন্য। শুধুমাত্র নিজেদের ঐকান্তিক চেষ্টা আর পরিশ্রমের ফলে বাংলা একাডেমি নিজেদের পরিধি বাড়িয়েছে মানুষের সেবার কথা ভেবে। ২০০৭ এ বাংলা স্কুলের দ্বিতীয় শাখা খোলে ব্ল্যাকটাউনে এবং ইঙ্গেলবার্ন বাসীর অনুরোধে ইঙ্গেলবার্নে। লাকেম্বা শাখার জন্য গত ২০১১ থেকেই কাজ করছিল একাডেমী। এর মাঝে উল্লেখযোগ্য হলো ২০১০ সালের নভেম্বরে লাকেম্বা লাইব্রেরীর সেমিনার। এখানে জড়ো হয়েছিলেন লাকেম্বা, বেলমোর, ওয়াইলীপার্ক, পাঞ্চবোল সহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ।

আপনি অস্ট্রেলিয়া, অ্যামেরিকা, কানাডা, যুক্তরাজ্য, মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপ, আফ্রিকা বা এশিয়া মহাদেশের যে কোন দেশ বা পৃথিবীর মানচিত্রের যেখানই থাকুন না কেন, স্কুল গড়ায় বা একাডেমির যে কোন প্রকল্পের সাথে সংযুক্তিতে আপনার ইচ্ছার কথা আমাদের জানাতে পারেন। সম্ভব হলে আমরা আপনাকে এবং আপনার আসে পাশের মানুষের জন্য সেবার দ্বার উন্মুক্ত করতে পারি। বাংলা একাডেমি ইন্টারন্যাশনাল এ বিষয়ে কাজ শুরু করছে ২০১১ সালে। এ বিষয়ে রেজিস্ট্রেশন করে আমাদের ইমেইলে বিস্তারিত জানাতে পারেন।

উল্লেখ্য ইতালি,জার্মান,ফ্রান্স,সুইজারল্যান্ড সহ সমগ্র ইউরোপ ও অন্যান্য উন্নত দেশের যেকোনো বিষয়, যেমন ভিসা সংক্রান্ত ও মাইগ্রেসন বিষয়ে সকল তথ্য,ইউরোপের দেশ গুলোতে কিভাবে সরাসরি সরকারী বিভিন্ন মাধ্যমের সাথে সংযুক্ত হয়ে লিগ্যাল ভাবে আসা যায়? ও আসার পর আপনার করনীয় কি? কোথায় যাবেন? কিভাবে কি করবেন? সহ ইউরোপের প্রবাস জীবন যাপন সম্পর্কে যেকোনো ধরনের সাহায্য ও সহযোগীতা পেতে আমাদের পেইজ লাইক দিয়ে রাখতে পারেন। আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে যেতে এখানে ক্লিক করুন।
এতে করে ইউরোপের যেকোনো দেশে সরকারী ভাবে কোন প্রজেক্ট প্রকাশ হওয়ার সাথে সাথে আপনি আপনার ফেসবুকের ওয়ালে পেয়ে যাবেন।এবং আপনারা চাইলে সরাসরি আমিওপারি টিম এর সাথে আপনাদের প্রয়োজন অনুযায়ী ইউরোপ সংক্রান্ত যেকোনো বিষয়ে জানার জন্য যোগাযোগ করতে পারেন।আমাদের সাথে যোগাযোগ করার জন্য।

আমাদের সাথে যোগাযোগের বিস্তারিতঃ স্ক্যাইপ- amiopari টেলঃ +৩৯ ০৬২৪৪০৫২১৭ মোবাইল +৩৯ ৩৩৮১৪০৮৯১৭ (WIND)মোবাইলঃ +৩৯ ৩২০০৪১২৫৪০ (WIND)  মোবাইলঃ +৩৯ ৩৪২৭৯৭৩২৮০ (WIND) ইমেইলঃ  info@amiopari.com

ঠিকানাঃ Via Delle Albizzie-27, 00172 Rome (Centocelle), Italy.

কিভাবে আমাদের অফিসে আসবেন? কতো নাম্বার বাস/ট্রাম/মেট্রো ধরে? ইত্যাদি জেনে নিতে পারেন এখানে ক্লিক করে?

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

জার্মানিতে পড়তে চান? এক ওয়েবসাইটেই সব তথ্য!!
যারা অ্যামেরিকা ও ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ পেতে চান তারা এখানে আসুন
ইউরোপে পড়াশোনার জন্য কোন দেশে থাকা -খাওয়ার কেমন খরচ পড়বে ??
দেশ থেকে রাশিয়ায় কম খরচে উচ্চ শিক্ষা ও গ্রীনকার্ডের সুযোগ!
কেমন আছেন সাইপ্রাসে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা?
ডেনমার্কে বিদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য মাস্টার্স/পিএইচডি শেষে "স্টাব্লিশমেন্ট ভিসা" চালু!

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1155 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 0 comments… add one now }

Leave a Comment