ইতালীতে ২০১৬ সিজনাল জব ভিসায় বাংলাদেশ এবারও ব্ল্যাকলিস্টে

by Lesar on ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১৬পোস্ট টি ৪,০০৫ বার পড়া হয়েছে in ইতালির ইম্মিগ্রেশন তথ্য

মাঈনুল ইসলাম নাসিম : সুবিধাবাদী একশ্রেনীর বাংলাদেশী অভিবাসীদের পলায়নপ্রবণতা এবং লোভী দালালচক্রের অপকর্মের খেসারতে বিগত ৩ বছরের মতো এবারও ইতালীর সিজনাল জব ভিসায় কালো তালিকাভুক্তই রয়ে গেছে বাংলাদেশের নাম। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ মঙ্গলবার এতদসংক্রান্ত সরকারী গেজেট প্রকাশিত হয়েছে, যার অধীনে মৌসুমী কাজের জন্য এ বছর ১৩ হাজার কর্মী ইতালীতে আসবে ২৭টি দেশ থেকে। এশিয়ার সুপরিচিত ‘জব মার্কেট কান্ট্রি’ ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা এবং ফিলিপাইনের নাম উক্ত তালিকার শোভা বর্ধন করলেও চরম দুর্ভাগ্যজনকভাবে দেশভিত্তিক কোটার বাইরে রয়েছে বাংলাদেশ।

সিজনাল ভিসার নিয়ম অনুযায়ী এগ্রিকালচার এবং হোটেল-ট্যুরিজম সেক্টরে কয়েক মাসের কাজের মৌসুম শেষে বিভিন্ন দেশের কর্মীদের যথাসময়ে ফিরে যেতে হয় যার যার দেশে। ইতালীর আইন মেনে যারা যথাসময়ে ফিরে যান তাদেরকে পরের বছর সসম্মানে আবার সিজনাল ভিসা দেয়া হয় ইতালীতে প্রবেশের। নেক্কারজনক হলেও সত্য, ২০১৩ সালে বাংলাদেশ ‘ব্ল্যাক লিস্টেড’ হবার আগে ২০০৮ সাল থেকে ২০১২ অবধি ৫ বছরে যে ১৮ হাজার বাংলাদেশী সিজনাল জব ভিসায় ইতালী এসেছিলেন, তাদের মধ্যে সর্বসাকুলে মাত্র ৫০-৬০ জন যথাসময়ে বাংলাদেশে ফিরে যান।

ইতালীতে আসার পর কৃষিকাজ করবেন এমন কন্ডিশনে ঐসব বাংলাদেশীরা ঢাকা থেকে ভিসা নিলেও তাদের অধিকাংশই ইতালীতে এসে কর্মস্থলে রিপোর্টই করেননি। উক্ত ১৮ হাজার বাংলাদেশীর মধ্যে আবার অনেকেই সিজনাল ভিসার মেয়াদ থাকতে থাকতেই ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমিয়ে আবেদন করে বসেন রাজনৈতিক আশ্রয়ের। ইতালীকে তারা এক্ষেত্রে ব্যবহার করেছিলেন শুধুমাত্র ‘ট্রানজিট কান্ট্রি’ হিসেবে। যারা ইতালীতেই অবস্থান করেন তারাও একটা সময় যথারীতি নাম লেখান অবৈধ অভিবাসীর তালিকায়। আইন ভঙ্গকারী লোভাতুর বাংলাদেশীদের দ্বারা টানা ৫ বছর সম্পাদিত লজ্জাজনক এমন অপকের্মের খেসারতে ‘যৌক্তিক’ কারণেই আজও কপাল পুড়ছে বাংলাদেশের।

InstaForex *****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এ বছরেও ইতালিতে ১০ হাজার বিদেশীকে কাজের প্রশিক্ষণ বাবদ ভিসা দেওয়া হবে।
Decreto Flussi 2014 বা সিজনাল ভিসার অফিসিয়াল গ্যাজেট প্রকাশিত!! ৪ এপ্রিল ২০১৪ সকাল ৯টা থেকে ফর্ম পূর...
ইউরোপে অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সুখবর। খুব শীঘ্রই ইতালিতে অবৈধদের বৈধ করার গেজেট পাস হতে যাচ্ছে।
ইতালিয়ান নাগরিকত্ব/পাসপোর্ট তথা Cittadinanza তে আনা হচ্ছে নতুনত্ব।
ব্রেকিং নিউজ ইতালির ভেনিসে Permesso di soggiorno নবায়নের ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে।
ইতালি ও ইউরোপে অবৈধ অভিবাসীরা চাইলে ইতালিতে বৈধ হতে পারেন?কিন্তু কিভাবে বিস্তারিত পড়ুন!!

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1171 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 2 comments… read them below or add one }

Ahmed kibria ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১৬ at ২:২৯ অপরাহ্ণ

আমার মেন হয় এবার সবার িশক্কা হেয়েছ। এিদেক সরকারেক উিচ্ত এ িদেক নজর িদেয় আবার যােত এ িভসা open হয়। এ পদেককপ েনওয়া।

Reply

uttam kumar saha মার্চ ২৪, ২০১৬ at ৭:২৬ অপরাহ্ণ

আমি আপনাদের কাছে জানতে চাই ফ্রান্স এ কি রাজনৈতিক আশ্রয় পাওয়া যায় মানে কেস নেয়

Reply

Leave a Comment