ইতালিতে কিভাবে দ্রুত ট্যুরিস্ট ভিসায় পরিবার নিয়ে আসবেন? কি কি লাগবে?

by Lesar on এপ্রিল ৩, ২০১৮পোস্ট টি ৪,৬৮২ বার পড়া হয়েছে in ইতালির ও ইউরোপের ভিসাগত পরামর্শ

প্রিয় আমিওপারির সম্মানিত পাঠক বৃন্দ আশাকরি মহান সৃষ্টি কর্তার অশেষ রহমতে আপনারা সবাই ভালোই আছেন। বন্ধুরা আজকে আমরা আলোচনা করবো কিভাবে আপনি ইতালির টুরিস্ট বা ভিজিট ভিসায় আবেদনের মাধ্যমে দ্রুত আপনার পরিবার ইতালি নিয়ে আসতে পারেন ? এবং কিভাবে কি করতে হয় ? কি কি ডকুমেন্টস লাগবে এবং এর জন্য দেশে কি কি প্রয়োজন? এবং ইতালি থেকে কি কি সংগ্রহ করতে হবে? ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আপনাদের কাছে কিছু প্রয়োজনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরার চেস্তা করবো।

ইতালিতে ফ্যামিলি রি ইউনিওন ভিসায় দিন দিন অনেক কড়াকড়ি আইন করার কারনে অনেকের কাছেই তাদের পরিবারকে ইতালিতে নিয়ে আসা সম্ভম হয়ে উঠছেনা। আবার অনেকে নানা ঝামেলার মধ্য দিয়ে কাগজ পত্র বের করে দেশে ফাইল জমা কড়িয়েও দীর্ঘ দিন ধরে প্রতীক্ষার দিন গুনছেন ভিসা পাওয়ার আশায়। এবং আপনাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছে যারা ইতালিতে নানা ঝামেলা ও সমস্যা পেড়িয়ে অনেক কষ্টে সকল কাগজ পত্র প্রেফেৎতুড়ায় জমা করিয়েও মাসের পর মাস এমন কি বছর ধরেও অপেক্ষা করে নুল্লাওস্তা পাচ্ছেন না এবং সর্বোপরি অপেক্ষার প্রহর গুনতে গুনতে ধৈর্য হারা হয়ে গিয়েছেন? তারা চাইলে খুব সহজেই তাদের স্বামী/স্ত্রী, সন্তান অথবা বাবা/মা এমনকি ভাই/বোন ও শ্বশুর/শাশুড়ি কে ইতালির ট্যুরিস্ট ভিসায় আবেদনের মাধ্যমে খুব অল্প সময়ের মদ্ধেই আপনার কাছে ঘুরতে নিতে আসতে পারেন।

আর আমাদের জন্য একটি আনন্দেন বিষয় হোল যে, ইতালির সরকার ২০১৮ সাল থেকে ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদন ফর্ম অনলাইন ভিত্তিক করেছে মানে ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করার সময় যে ভিসা ফর্ম পুরন করতে হয়, সেই ভিসা ফর্ম বর্তমানে অনলাইন ভিত্তিক করে দিয়েছে, মানে পূর্বে আমরা এই ফর্ম হাতে পুরন করে জমা করাতাম, কিন্তু বর্তমানে এটা অনলাইন ভিত্তিক করা হয়েছে, অনলাইন করার ফলে ভিসা পাওয়ার মানও আগের তুলনায় অনেক পরিমান বৃদ্ধি পেয়েছে। কারন পূর্বে হাতে লিখা ফর্ম হওয়াতে দেশে দূতাবাসের সাথে মিলে কিছু দালাল চক্র নানা ধরনের অপকর্ম ও দুর্নীতি সাধন করতে পারলেও বর্তমানে এই ভিসা ফর্ম অনলাইন ভিত্তিক করার ফলে দেশে এই ধরনের দালাল দের আর কোন কিছু করার থাকছে না। কারন আপনি অনলাইন ফর্ম পুরন করার সাথে সাথে ইতালি ইম্মিগ্রেসন সিস্টেমের ডাটাবেজে সরাসরি আপনার আবেদন পত্র জমা পড়ছে এবং এতে করে বর্তমানে দেশে ইতালি দুতাবাসের সাথে মীলিত কেউ দুর্নীতি গ্রস্ত হয়ে, চাইলেও নিজের স্বার্থে আপনার আবেদন প্রত্যাখ্যান করতে পারবে না। কারন ২০১৮ সাল থেকে সরাসরি ইটালি থেকে প্রতিটি ট্যুরিস্ট ভিসার হিসাব রাখা হবে ও ভিসা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আর আপনারা এই ট্যুরিস্ট ভিসা সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চাইলে সরাসরি আমিওপারি টিম এঁর সাথে যোগাযোগ করে জেনে নিতে পারবেন।এবং নিন্মে আপনাদের কাছে ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য কিভাবে কি করতে হবে ইত্যাদি নিয়ে কিছু তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

আমাদের সাথে যোগাযোগের বিস্তারিতঃ স্ক্যাইপ- amiopari টেলঃ +৩৯ ০৬২৪৪০৫২১৭ মোবাইল +৩৯ ৩৩৮১৪০৮৯১৭ (ইমো) মোবাইলঃ +৩৯ ৩২০০৪১২৫৪০ (ইমো)
ইমেইলঃ  info@amiopari.com
ঠিকানাঃ Via Delle Albizzie-27, 00172 Rome (Centocelle), Italy.

তাহলে আসুন এবার জেনে নেই ইতালির ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদনের জন্য কিভাবে কি করতে হয়? বা কি কি ডকুমেন্টন্স প্রয়োজন?

ইতালির ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ

- “সি” (C) টাইপ ভিসা ফরম ( সম্পূর্ণরুপে সম্পন্ন এবং আবেদনকারী কর্তৃক স্বাক্ষরিত ) আবেদনকারী ১৮ বছরের নিচে হলে ভিসা ফরম পিতা/মাতা স্বাক্ষর করবে এবং স্বাক্ষর প্রমানসরুপ পিতা / মাতার বাংলাদেশ সরকার অনুমদিত পরিচয় পত্র সহকারে আবেদনকালিন সময়ে উপস্থিত থাকতে হবে।

২- পাসপোর্ট কমপক্ষে ১৮০ দিন পর্যন্ত বৈধ এবং অন্তত উভয় দিকে ফাঁকা ১টি খালি পৃষ্ঠা থাকতে হবে সাথে ( সকল ভিসা পেজ এর কপি- যদি এর আগে অন্য কোন দেশের ভিসায় ভ্রমন করে থাকেন )।

৩- সম্প্রতিক সময়ে তোলা পাসপোর্ট সাইজ ও ধরনের দুই কপি রঙ্গিল ছবি। ( ৬ মাসের মধ্যে তোলা ছবি হতে হবে এবং ব্যাকগ্রাউন্ড অবশ্যই সাদা হতে হবে )

৪- চাকুরিজীবিদের জন্যঃ
ক) নিয়োগপত্র, খ) বেতন বিবৃতি / গত ছয় মাসের বেতন স্লিপ ( আসল + ফটোকপি )
ব্যবসায়িক/ নিয়োগকর্তাদের জন্যঃ
ক) আবেদনকারীর কোম্পানি রেজিস্ট্রেশন ডকুমেন্ট, খ) ইনকরপোরেশন সার্টিফিকেট, গ) মেমোরেনডাম অব আর্টিকেল এন্ড এসোসিয়েশন (শেয়ারহোল্ডারদের নামের তালিকা পাতা সাথে প্রথম দুই পাতা কপি এবং শেষ পাতার কপি) ঘ) স্থানীয় চেম্বার অব কমার্স সঙ্গে বৈধ সদস্যপদ সার্টিফিকেট, ঙ) ট্যাক্স/টিন নম্বর, চ) ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ছ) ট্রেড লাইসেন্স ( মুল + ফটোকপি)।

৫- ব্যাংক স্টেটমেন্ত- গত ছয় মাসের সম্প্রতি তুলে আনতে হবে (ব্যক্তিগত ও কোম্পানির, আসল ও ফটোকপি), ক্রেডিট কার্ড স্টেটমেন্ট (যদি থাকে)।

৬- সঙ্গী অথবা পরিবারের সদস্যদের জন্য অতিরিক্ত ডকুমেন্টঃ
• স্বামী বা স্ত্রীর জন্য (বিয়ের সার্টিফিকেট) যেমন স্বামী তার স্ত্রী কে টুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করলে এই সার্টিফিকেট লাগবে।
• শিশুদের ক্ষেত্রে ( জন্মের সার্টিফিকেট )।
• শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ( আইডি কার্ড ফটোকপি সহ স্কুল থেকে আনুমোদন চিঠি)।
• পরিবারের কারো ক্ষেত্রে ফ্যামিলি সার্টিফিকেট (সার্টিফিকেটটি পরিবারের প্রধান এর নামে ইস্যু হবে এবং পরিবারের প্রধানসহ সকল সদস্যের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে হবে)।
• শিশুদের মধ্যে কেউ যদি বাবা অথবা মা দুই জনের একজন ছাড়া শুধু বাবার সাথে অথবা মার সাথে ভ্রমন করে, সেই ক্ষেত্রে পিতা/মাতার অনাপত্তিপত্র প্রদান করতে হবে।

৭- অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়ঃ টুরিস্ট ভিসার জন্য “লেত্তেরা ডি ইনভিতো” (lettera di invito) invitation letter তথা আমন্ত্রনপত্র অনেক বড় ভুমিকা পালন করে, যেমন আপনি আপনার স্ত্রীর জন্য এই আমন্ত্রনপত্র পাঠাতে পারেন, যা আপনার স্ত্রীকে এই ভিসা পেতে অনেক বেশি কার্যকারী ভুমিকা পালন করে।তবে সেই সাথে সাথে আপনার ইতালিয়ান ব্যাংক একাউন্ত থেকে ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখাতে হবে(উল্লেক্ষ আপনার ইতালিতে ব্যাংক একাউন্ত না থাকলে ইতালির পোষ্টা-পে কার্ড থাকলেও সেই কার্ড এর মাধ্যমে গত ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট বের করে নেওয়া যায়) এবং সে আপনার কাছে আসার পর তার ভ্রমন কালিন থাকা খাওয়ার খরচ বাবদ ইত্যাদি বিষয় আপনি বহন করবেন যদি সে ব্যর্থ হয়। সেই মর্মে আপনার ব্যাংকে ৬ থেকে ৭ হাজার ইউরো সমপরিমান টাকা জমা রাখতে হবে।

এবং এর সাথে সাথে “ফিডেইয়ুসসিওনে বাঙ্কারিয়া”( Fideiussione bancaria)Bank Guarantee ব্যাংক গ্যারান্টির এই ইনস্যুরেন্স করাতে হবে, যা ইতালিতে এক ধরনের ব্যাংক ইনস্যুরেন্স কোম্পানি রয়েছে যারা ২৫০, ৩০০ ইউরোর বিনিময়ে এই ধরনের বিমা গুলো করে থাকে, এই সকল বীমা করার মানে হচ্ছে, আপনার স্ত্রী ইতালিতে আসার পর আপনার যদি কোন প্রকার দুর্ঘটনা ঘটে ,তখন তার থাকা খাওয়ার খরচ বাবদ এই ইনস্যুরেন্স কোম্পানি থেকে তিন হাজার নয়সো পাঁচ ইউরো পর্যন্ত পরিশোধ করা হবে , যাকে ইতালিয়ান ভাষায় বলা হয় “ফিডেইয়ুসসিওনে বাঙ্কারিয়া”( Fideiussione bancaria)Bank Guarantee ব্যাংক গ্যারান্টি। আর দুক্ষের বিষয় হচ্ছে আমরা অনেকেই ভাষাগত সমস্যার জন্য এই কাজটি কোথা থেকে এবং কিভাবে কি করে এবং অল্পমূল্যে করানো যায়? সেই বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত। আর তাই আপনার জন্য রয়েছে আমিওপারি টিম, উল্লেখ্য আমিওপারির সাথে ইতালির সবচাইতে নামকরা এই ধরনের ইনস্যুরেন্স কোম্পানি এবং ব্যাংক এর সাথে মিলে কাজ করার চুক্তি রয়েছে। তাই আপনি ইতালির যেকোনো প্রান্তেই থাকেন না কেন এমন কি যাদের ইতালিতে কেউ নেই? তারাও বাংলাদেশ থেকে আমিওপারি টিম এর মাধ্যমে সর্বশ্রেষ্ঠ মূল্যে এই ধরনের ব্যাংক গ্যারান্টি সংক্রান্ত কাগজ পত্র সংগ্রহ করতে পাড়বেন। শুধু তাই নয় কিভাবে আমন্ত্রনপত্র তৈরি করতে হয়? কি কি লাগে ইত্যাদি সকল বিষয়ে আমিওপারি টিম এর কাছে সকল ধরনের সাহায্য পেতে পারেন।বিস্তারিত জানতে নিন্মে আমাদের টিম এর সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার বিস্তারিত রয়েছে আপনাদের প্রয়োজনে যোগাযোগ করতে পারেন।

৮- ব্যাংক গ্যারান্টির সাথে সাথে তার স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারনে কমপক্ষে ৩০০০০ ইউরোর বিদেশে অবস্থানকালীন সময়ের জন্য মেডিকেল ইনস্যুরেন্স কভারেজ কাগজপত্র দেখাতে হবে, এর মানে আপনাকে দুই ধরনের বিমা করতে হবে

১- একটি হচ্ছে ব্যাংক গ্যারান্টি সংক্রান্ত বিমা, যা ইতালিয়ান দূতাবাসকে নিশ্চিত করছে যে, তার বিদেশ ভ্রমন কালিন থাকা খাওয়া সংক্রান্ত কোন সমস্যা হলে ব্যাংক এই বিষয়ে সাহায্য করবে এবং

২- মেডিকেল ইনস্যুরেন্স, যা উনার বিদেশে ভ্রমণ কালিন শারীরিক কোন সমস্যায় পড়লে ডাক্তার খরচ সহ মেডিসিন খরচ বহন করবে। আর এই মেডিকেল ইনস্যুরেন্স ও আমরা খুব অল্প মূল্যে আপনাদের করিয়ে দিতে পারবো।

৯- রিটার্ন এয়ার টিকেট বুকিং তথা টিকেট বুকিং পিএনআর নাম্বার এর (মূল ও ফটোকপি দিতে হবে), উল্লেখ্য এই বিষয়টিও নাম মাত্র মূল্যে আপনারা আমিওপারি টিম এর মাধ্যমে দুনিয়ার যেই প্রান্তেই থাকেন না কেন? অতি সহজেই করিয়ে নিতে পাড়বেন। বিস্তারিত জানতে নিন্মের ঠিকানায় অথবা নাম্বারে যোগাযোগ করুন।

১০- ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কমপক্ষে ৩০ ক্যালেন্ডার দিন প্রয়োজন হতে পারে। তবে বর্তমানে এর চাইতেও বেশি সময় নিয়ে থাকে দূতাবাস।
উক্ত বিষয়ে অথবা ইতালিয়ান যেকোনো ধরনের ভিসা সংক্রান্ত বিষয়ে বাংলাদেশ থেকে শুরু করে ইতালিতে আপনার যেকোনো বিষয়ে আমিওপারি টিম এর সাথে সরাসরি যোগাযোগ করে সমাধান নিয়ে নিতে পাড়বেন।আর একটি বিষয়, যেহেতু এই ধরনের তথ্য গুলো আমাদের সকলের জেনে রাখা দরকার, তাই আপনাদের সকলের কাছে অনুরোধ থাকবে এই লেখাটি বেশি বেশি করে আপনার ফেসবুক সহ বিভিন্ন সোশ্যাল নেটওয়ার্ক গুলোর মাধ্যমে শেয়ার করে পৌঁছে দেওয়ার জন্য। ধন্যবাদ।

আপনারা যারা ইতালিতে ট্যুরিস্ট ভিসায় বাংলাদেশ অথবা বিশ্বের যে কোন দেশ থেকে আবেদন করতে চান তারা উক্ত বিষয়ে যেকোনো ধরনের সাহায্য ও সহযোগিতার জন্য আমিওপারি টিম এর সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন।

আমাদের সাথে যোগাযোগের বিস্তারিতঃ স্ক্যাইপ- amiopari টেলঃ +৩৯ ০৬২৪৪০৫২১৭ মোবাইল +৩৯ ৩৩৮১৪০৮৯১৭ (WIND) মোবাইলঃ +৩৯ ৩২০০৪১২৫৪০ (WIND)  মোবাইলঃ +৩৯ ৩৪২৭৯৭৩২৮০ (WIND)  মোবাইলঃ +৩৯ ৩২৭২০৭৮৯০৮ (WIND)  ইমেইলঃ  info@amiopari.com

ঠিকানাঃ Via Delle Albizzie-27, 00172 Rome (Centocelle), Italy.

আর যারা আপনাদের ফেসবুকে আমাদের সাইটের প্রতিটি লেখা পেতে চান তারা এখানে ক্লিক করে আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে গিয়ে লাইক দিয়ে রাখতে পারেন। তাহলে আমিওপারিতে প্রকাশিত প্রতিটি লেখা আপনার ফেসবুক নিউজ ফিডে পেয়ে যাবেন। ধন্যবাদ।

উল্লেখ্য আমিওপারিতে পূর্বে প্রকাশিত ইউরোপ ও ইতালি নিয়ে অনেক প্রয়োজনীয় কিছু লেখার লিঙ্ক এখানে তুলে ধরা হল যা আপনাদের কাজে আসতে পারে।

* ইতালির ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদন অনলাইনে (২০১৮ থেকে) বেড়ে গেলো ভিসা পাওয়ার সম্ভাবনা।বিস্তারিত এখানে ক্লিক করে জেনে নিন।

* পোল্যান্ডে, পর্তুগালে, মাল্টায় ১০০% গ্যারান্টি সহকারে জব ভিসা ।। সেলারি ১২০০/১৪০০ ইউরো !! বিস্তারিত এখানে ক্লিক করে জেনে নিন।

* ২০১৮ নতুন নিয়মে দেশে ইতালি ফ্যামিলি ভিসার আবেদন প্রক্রিয়ার বিষয় গুলো জেনে নিন। এখানে ক্লিক করে।

* যেভাবে সনাক্ত করবেন জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট। এখানে ক্লিক করে জেনে নিন। 

*ইউরোপ থেকে ৯৩ হাজার অবৈধ দেশে পাঠানোর বিষয় টি সত্য না মিথ্যা? জেনে নিন বিস্তারিত। এখানে ক্লিক করে।

*ইতালি ও ইউরোপে অবৈধ অভিবাসীরা চাইলে ইতালিতে বৈধ হতে পারেন?কিন্তু কিভাবে বিস্তারিত পড়ুন!! এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন।

* সেঞ্জেন ভুক্ত ইউরোপের যেকোনো দেশের পাসপোর্ট,রেসিডেন্স কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি ডকুমেন্টস গুলো চিনে রাখুন। আজকের বিষয় Austria এখানে ক্লিক করুন।

*ঢাকাস্থ ইতালি দূতাবাসের হয়রানী থেকে বাঁচতে প্রবাসীরা দেশে গিয়ে কি কি করতে পারেন?সবাই পুড়ুন নিজে বাঁচুন অন্যকে বাঁচান। এখানে ক্লিক করে পড়ুন।

* ইতালিতে কিভাবে দ্রুত ট্যুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে পরিবার নিয়ে আসবেন? কি কি লাগবে? এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন।

* ইতালির ট্যুরিস্ট ভিসা পাওয়ার কিছু চমৎকার তথ্য,কেন আমি ভিসা পাইনা? তার সমাধান? এখানে ক্লিক করে জেনে নিন।

* কিভাবে ইতালির টুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করবেন? কি কি লাগবে ইত্যাদি বিষয় জানতে এখানে ক্লিক করে জেনে নিতে পারেন।

*ইতালিতে ট্যুরিস্ট ভিসায় এসে ফেরত না গেলে কি হবে?পুলিশ ধরলে কি হবে?ট্যুরিস্ট ভিসা নিয়ে যত প্রশ্ন ও তার উত্তর। এখানে ক্লিক করে জেনে নিন।

* ডয়েচ ব্যাংকে ব্লক একাউন্ট খোলা, ডকুমেন্ট পাঠানোর নিয়মাবলী এবং এম্ব্যাসির সহযোগীতা। আপডেটঃ ২৭ আগস্ট, ২০১৬ (লিখাতি পড়তে এখানে ক্লিক করুন)

*ইতালিয়ান কাগজ ধারীরা কিভাবে ইংল্যান্ডের ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদন করবেন? কি কি কাগজ পত্র লাগবে? জেনে নিন বিস্তারিত।

* ইতালিয়ান পাসপোর্ট দ্রুত পাবো কিভাবে?ও ইতালিয়ান নাগরিকত্ব পেতে সে সংক্রান্ত কিছু বিষয় না জানলেই নয়। এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিতে পারেন।

*ইতালিয়ান পাসপোর্টের আবেদন করবো? কোন বিষয় গুলো অবশ্যই উল্লেখ করতে হবে? এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন।

*ইউরোপের বা ইতালির পাসপোর্ট নেওয়ার সময় দ্বৈত নাগরিকত্ব রাখার সুবিধা অসুবিধা গুলো জেনে রাখুন?  বিস্তারিত এখানে। 

*হাজারো অবৈধ ইমিগ্রান্টদের জন্য পর্তুগালের দরজা বন্ধ।Immigration News Update about Portugal এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন।

*ইতালিস্থ রোমের বাংলাদেশ দূতাবাসের জরুরী বিজ্ঞপ্তি, অনলাইন এপয়েন্টমেন্ট ব্যতীত কোন প্রকার কাজ সম্পাদন করা হবে না? বিস্তারিত এখানে।

*ইতালিতে রোড এক্সিডেন্ট হলে কিভাবে ৩০ দিনের মধ্যে ক্ষতিপূরণ পাবো? জেনে নিন বিস্তারিত।এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন।

*ইতালিতে নির্যাতিত নারীরা কিভাবে তাদের অধিকার,হক আদায় করবেন?কোথায় যাবেন?কি করবেন? পার্ট – ১ এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন।

* বন্ধ হল ইতালির স্টুডেন্ট ভিসায় আসার পথ। এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিতে পারেন।

* ইউরোপে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা অথবা এণ্ট্রি ব্যান কি? কি কি কারনে আপনাকে ব্যান করতে পারে? এখানে ক্লিক করে জেনে নিতে পারেন।

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

ইতালির ফ্যামিলি ভিসা সহ যেকোনো ভিসা নিয়ে দেশে VFS এজেন্ট এর নানা রকম হয়রানি ও প্রতারণায় অবশেষে ইতালি...
স্পেনে যেতে ভিসার জন্য আবেদন করা, বিভিন্ন ভিসা ফি, ঠিকানা,সময় সূচি, প্রক্রিয়া ইত্যাদি সহ সকল তথ্য এক...
ইতালিতে আমার ভাই,বোন,আত্মীয়দের জন্য কিভাবে টুরিস্ট ভিসায় আবেদন করবো?কি কি লাগবে?সবার জেনে রাখা উচিত।
আমার পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তবে এটির ইউ.এস ভিসা এখনো বৈধ আছে।আমাকে কি একটি নতুন ভিসার জন্য আব...
ইতালি বা ইউরোপের ট্যুরিস্ট/সেঞ্জেন ভিসা দিয়ে প্রথম ডেসটিনেশন হিসেবে জার্মান অথবা অন্য দেশে আসতে পারব...
ইতালির ট্যুরিস্ট ভিসায় পরিবার এসে কি কাগজ করতে পাড়বে?

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1158 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 0 comments… add one now }

Leave a Comment