কিভাবে সহজে ইউরোপের সেঙ্গেন ভিসা করবেন?

by Lesar on মে ৪, ২০১৮পোস্ট টি ৯,১৮৭ বার পড়া হয়েছে in ইতালির ও ইউরোপের ভিসাগত পরামর্শ

সহজেই ইউরোপের সেঙ্গেন ভিসা করার টিপস গুলো জেনে নেই।বন্ধুরা আজ আমাদের আলোচ্য বিষয় কিভাবে এশিয়া মহাদেশ থেকে ইউরোপের সেঙ্গেন ভিসা করা যায়? যেমনঃ বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, নেপাল, ভুটান, ইন্দোনেশিয়া, মালেশিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, আজারবাইজান, চীন, জাপান, উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, জর্ডান,কুয়েত, লেবানন, ওমান, কাতার, সৌদি আরব, সিরিয়া, ইয়েমেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুরস্ক, ফিলিস্তিনি সহ ইত্যাদি দেশ গুলো থেকে কিভাবে ইউরোপের সেঙ্গেন ভিসা করা যায়? সেই বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

আমাদের কাছে আপনারা প্রটিনিয়ত বিষয়টি জানার জন্য মেইল ও কল দিয়ে যাচ্ছেন, আর তাই আজ আমরা আপনাদের কাছে উক্ত বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। আসলে আমদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা এশিয়া মহাদেশ গুলো থেকে ইউরোপ আসার জন্য চেষ্টা করছেন কিন্তু ভালো ও নির্ভর যোগ্য কোন মাধ্যম না পাওয়ার কারনে আপনারা এই সহজ কাজটি করে উঠতে পারছেন না। আর তাই আজ আমরা আপনাদের কাছে বিষয়টি তুলে ধরবো। যাতে করে আপনারা খুব সহজেই এশিয়া মহাদেশের যেকোনো দেশ থেকেই, ইউরোপের সেঙ্গেন ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন। বন্ধুরা আপনারা যারা ইউরোপে আসতে চান? তারা ইউরোপের সেঙ্গেন ভিসার জন্য ইতালিকে টার্গেট করতে পারেন। কারন ইউরোপের অন্যান্য দেশ গুলোর তুলনায় ইতালিতে প্রচুর পরিমাণ পর্যটকদের জন্য ভ্রমণ করার মত পুরাতন ঐতিহ্য রয়েছে এবং ইতালিতে ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক প্রবাসী বৈধ ভাবে কাগজ নিয়ে বসবাস করে আসছে, এবং গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে যে, ইতালিতে মানাবাধিকার আইনও অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক শিথীল। আর এই কারনে ইতালিতে অবৈধরাও খুব নিশ্চিন্তে বসবাস করতে পারে।

আর আমাদের জন্য আনন্দের সংবাদ হচ্ছে এই যে, ইতালিতে ২০১৮ সাল থেকে ইতালিও সরকার ট্যুরিস্ট/সেঙ্গেন ভিসার আবেদন করার সিস্টেম তথা ফর্ম পুরন কারার বিষয়টি সম্পূর্ণ অনলাইন ভিত্তিক করে দিয়েছে। যাতে করে এশিয়া মহাদেশ থেকে আমরা সহজেই ভিসা পেতে পারি এবং ভিসা দেওয়ার প্রক্রিয়া সহজ করন করাই ছিল ওদের মূল লক্ষ্য। উল্লেখ্য ইতালির ট্যুরিস্ট ভিসার অনলাইনে আবেদন করার নতুন নিয়ম নিয়ে আমিওপারিতে ইতিমধ্যে একটি পোস্ট করা হয়েছে, আপনারা এখানে ক্লিক করে অবশ্যই সেই লিখাটি পরে নিবেন।

আসুন এবার জেনে নেই ইতালিতে কিভাবে খুব সহজেই সেঙ্গের ভিসার জন্য আবেদন করবেন এবং কি কি লাগবে বা কিভাবে কি করবেন?

বন্ধুরা ইতালিতে আমরা দুইভাবে সেঙ্গেন ভিসার জন্য আবেদন করতে পারি।

১- নিজের নামে ভালো কোন ব্যবসা থাকলে নিজে নিজেই ভিসার জন্য আবেদন করা যায় অথবা,

২- ইতালিতে আপনার পরিচিত কেউ থাকলে তাদের কাছ থেকে স্পন্সর নিয়ে সেঙ্গেন ভিসার জন্য আবেদন করা যায়।

উপরে বলা দুটো মাধ্যম এর মধ্যে দ্বিতীয় মাধ্যমটি অনেক কার্যকর। আর আমরা দ্বিতীয় মাধ্যম নিয়েই বিস্তারিত আলোচনা করবো।

উপরে বলা দ্বিতীয় মাধ্যমে ইতালিতে সেঙ্গেন ভিসার জন্য আবেদন করতে হলে ইতালিতে আপনার পরিচিত কোন বাংলাদেশী অথবা ইতালিয়ান নাগরিক থাকতে হবে। যারা আপনাকে তাদের কাছে ঘুরতে আসার জন্য স্পন্সর করবে। আর তাদের পাঠানো এই স্পন্সর এর সকল কাগজ পত্র নিয়ে আপনারা বর্তমানে এশিয়া মহাদেশের যে- যেই, দেশে আছেন, সেই দেশের ইতালিয়ান কন্সুলার তথা এমব্যাসি তে গিয়ে ভিসার জন্য আবেদন করতে পাড়বেন। এখন কথা হচ্ছে আপনাদের অনেকের হয়তো ইতালিতে তেমন কোন পরিচিত লোক নাও থাকতে পারে! যারা আপনাকে স্পন্সর করবে, আর এর জন্য আপনাদের স্পন্সর খুঁজে দেওয়ার জন্য আপনারা আমিওপারি টিম এর সাথে যোগাযোগ করলে আমরা আপনাকে স্পন্সর করার মত লোক খুঁজে দিতে পারবো। তাহলে আসুন জেনে নেই ইতালি থেকে স্পন্সর করার নিয়ম কারণগুলো  এবং কিভাবে কি করতে হবে।

ধরুন ধরে নিলাম আপনার ইটালিতে কোন পরিচিত বন্ধুবান্ধব বা আত্মীয় স্বজন আছে যারা আপনাকে স্পন্সর করবে।

সেই ক্ষেত্রে যে আপনাকে স্পন্সর করবে, তার ইটালির সকল ভ্যালিড ডকুমেন্ট থাকতে হবে, এবং ইতালিতে তার জব অথবা ব্যবসা থাকতে হবে। তাহলেই সে আপনার পাসপোর্ট এবং তার ডকুমেন্টস দিয়ে ইতালিতে আপনার জন্য এই স্পন্সরের সকল কাগজপত্র তৈরি করতে পাড়বে এবং এই কাগজপত্র তৈরি করা বলতে আপনার জন্য তার দুইটা ইনস্যুরেন্স করাতে হবে। যেমন একটা ব্যাংক গ্যারান্টির ইনস্যুরেন্স এবং আরেকটা হচ্ছে ট্র্যাভেল ইন্সুরেন্স।এর পর একটি ইনভাইটেশন লেটার তৈরি করাতে হবে এবং আপনার একটা বিমান টিকিট এর আসা যাওয়ার প্রে-রিজার্ভেশন দিতে হবে। এবং সব শেষে আপনার নামের উপর একটা হোটেল রিজার্ভেশন ও দেওয়া লাগবে আর উনার নিজের নামে যদি ইতালিতে বাসা ভাড়া থাকে তাহলে আর হোটেল রিজার্ভেশন এর প্রয়োজন হয় না, সেই ক্ষেত্রে উনার বাসার ঠিকানা ব্যবহার করলেই হয়।

এখন কথা হচ্ছে আপনার বন্ধুর যদি উপরে বলা সব কিছু ঠিকথাক থাকে এবং সে যদি আপনাকে স্পন্সর করতে রাজী হয়। তাহলে উনার ইতালিতে এই সকল কাগজ পত্র গুলো তৈরি করতে কি পরিমাণ খরচ হবে?

যদি আপনার কোন বন্ধুবান্ধব বা আত্মীয়স্বজন আপনাকে স্পন্সর করে তাহলে উনার সকল ডকুমেন্টস দিয়ে অফিসিয়াল সকল কাগজ পত্র তৈরি করতে আপনাদের খরচ পরবে বিডি টাকায় ৮০,০০০ হাজার টাকা, আর যদি আপনাদের কোন পরিচিত কেউ ইতালি না থাকে স্পন্সর করার মত, তাহলে সেই ক্ষেত্রে আমরা আপনাদের জন্য স্পন্সর যোগাড় করে দিতে পারবো তখন আপনাদের খরচ পরবে বিডি তাকায় ১ লক্ষ টাকা।

আর হ্যাঁ একটি বিষয় মনে রাখবেন ইতালির সরকার যেহেতু ২০১৮ সাল থেকে সেঙ্গেন ভিসার আবেদন করার জন্য ফর্ম পুরন করার প্রক্রিয়া অনলাইন করে দিয়েছে আর এটা হচ্ছে আমাদের জন্য একটা সবর্ণ সুযোগ, কেননা সব সময়ি নতুন কোন আইন বের হওয়ার সাথে সাথে সেই বিষয় টি কাজে লাগানো দরকার।

উল্লেখ্য আপনারা যারা ইতালিতে ট্যুরিস্ট ভিসায় বাংলাদেশ অথবা বিশ্বের যে কোন দেশ থেকে আবেদন করতে চান তারা উক্ত বিষয়ে যেকোনো ধরনের সাহায্য ও সহযোগীটার জন্য আমিওপারি টিম এর সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন।

আমাদের সাথে যোগাযোগের বিস্তারিতঃ স্ক্যাইপ- amiopari টেলঃ +৩৯ ০৬২৪৪০৫২১৭ মোবাইল +৩৯ ৩৩৮১৪০৮৯১৭  মোবাইলঃ +৩৯ ৩২০০৪১২৫৪০

ইমেইলঃ  info@amiopari.com

ঠিকানাঃ Via Delle Albizzie-27, 00172 Rome (Centocelle), Italy.

আর যারা আপনাদের ফেসবুকে আমাদের সাইটের প্রতিটি লেখা পেতে চান তারা এখানে ক্লিক করে আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে গিয়ে লাইক দিয়ে রাখতে পারেন। তাহলে আমিওপারিতে প্রকাশিত প্রতিটি লেখা আপনার ফেসবুক নিউজ ফিডে পেয়ে যাবেন। ধন্যবাদ।

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

ইতালিতে ২০১৩ সিজনাল ভিসায় বাংলাদেশ বাদ পরার কারন জানালেন ইতালি রাষ্ট্রদূত ‘শাহাদাত হোসেন’
ইতালির ফ্যামিলি ভিসা নিয়ে চলছে নানা ধরণের প্রতারণা, দালাল হতে সাবধান!!
সাইপ্রাস যাওয়ার ভিসা সংক্রান্ত সকল তথ্য এক সাথে। ভিসা ফি, ভিসার প্রকার ভেদ ইত্যাদি সহ প্রয়োজনীয় তথ্য...
ব্রেকিং নিউজ!! ইতালির ভিসা আবেদন কেন্দ্র ভিএফএসে আনা হচ্ছে নতুনত্ব!!
অবশেষে এপয়েন্টমেন্ট ছাড়াই ইতালির ভিসা আবেদন কেন্দ্র ভিএফএস গ্লোবালে ভিসার আবেদন জমা নিচ্ছে।
ইতালিতে ফ্যামিলি ভিসা ছাড়া কিভাবে দ্রুত স্বামী/স্ত্রী কে টুরিস্ট ভিসায় নিয়ে আসা যায়? জেনে নিন বিস্তা...

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 1156 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

আমিওপারি নিয়ে আপনাদের সেবায় নিয়োজিত একজন সাধারণ মানুষ। যদি কোন বিশেষ প্রয়োজন হয় তাহলে আমাকে ফেসবুকে পাবেন এই লিঙ্কে https://www.facebook.com/lesar.hm

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 0 comments… add one now }

Leave a Comment