আপনার সন্তান ইতালিতে আসলে ওদের স্কুলে ভর্তি করার জন্য কি করতে হবে?

by adilzaman on জুলাই ১৮, ২০১৩পোস্ট টি ১,১৮৫ বার পড়া হয়েছে in ইতালিতে পড়ালেখা সংক্রান্ত

আমাদের অনেকেই বর্তমানে সুযোগ থাকায় তাদের পরিবার নিয়ে আসছেন ইতালিতে। এতে করে সন্তানেরা বাবা-মা সহ স্বপরিবারে থাকতে পারলেও পড়াশুনার দিক দিয়ে ওরা নানান সমস্যায় পড়ে যায়। কেননা ওদের সবাই বাংলাদেশে পড়ালেখা করেছে এখন এখানে এসে সমস্যায় পড়ে যায় যেমন নতুন ভাষা, কি ভাবে কি করবে বা কোথায় কি করতে হবে এবং তার চেয়েও বড় সমস্যা হোল এখানে যখন আপনি ওদের ভর্তি করাতে নিয়ে যাবেন তখন ইতালিয়ান স্কুলে ওরা আগে কতটুকু পর্যন্ত পড়েছে এসমস্ত সার্টিফিকেট ইতালিয়ান ভাষায় ট্রান্সলেট করা সহ দেখতে চায়, কাজেই অনেকে এগুলো নিয়ে নানান সমস্যায় পড়ে যায়।তাই আমরা যারা তাদের পরিবার ইতালিতে নিয়ে আসার কথা ভাবছি তারা যেন আগে থেকেই সব কিছু দেশ থেকে তৈরি করে নিয়ে আসতে পারি সে কোথা চিন্তা করে আমরা এখানে দেখবো আপনার সন্তানকে ইতালিয়ান স্কুলে ভর্তি করাতে হলে কি ভাবে কি করতে হবে এবং কি কি কাগজ পত্র প্রয়োজন।

প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ( ৬ থেকে ১৪ বছর পর্যন্ত)

শিশুরা ইতালিতে আসার পূর্ব মুহূর্তেঃ

১) নিজের দেশ হতে নিন্মলিখিত কাগজপত্র সংগ্রহ করা আবশ্যক-

  • সর্বশেষ শ্রেণীর স্কুল রেজাল্ট কার্ড অনুবাদ করে আনতে হবে।
  • স্কুল সার্টিফিকেট অথবা সর্বশেষ রেজাল্ট কার্ড – যা সর্বমোট পড়াশুনার বছর উল্লেখ করবে এবং উত্তীর্ণ শ্রেণীর নাম জানতে সহায়তা করবে। এই সার্টিফিকেট অবশ্যই নির্দিষ্ট অনুবাদ অফিস থেকে অনুবাদ বা ইতালিয়ান এমব্যাসি থেকে অনুবাদ সহ সত্যায়িত করে আনতে হবে।
  • টিকা সার্টিফিকেট আনতে হতে পারে অনুবাদ সহ।

২) বাসার নিকটস্থ স্কুল থেকে তথ্য সংগ্রহ করুন।

পরিবারের সদস্যদের ইতালি নিয়ে আসার জন্য প্রেফেত্তুরায় প্রয়োজনীয় কাজগপত্র জমা দেওয়ার মুহূর্তে স্কুলে আগাম ভর্তির আবেদন করলে অতি সহজে এবং নিশ্চিত ভাবে ছেলেমেয়েদের জন্য স্কুলের ক্লাসে সীট পাওয়া যাবে।

 

 

উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ( ১৪ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত)

ছেলেমেয়েরা ইতালিতে আসার পূর্ব মুহূর্তেঃ

নিজের দেশ হতে নিন্মলিখিত কাগজপত্র সংগ্রহ করা আবশ্যক-

  • স্কুল সার্টিফিকেট যা সর্বমোট পড়াশুনার বছর উল্লেখ করবে এবং উত্তীর্ণ শ্রেণীর নাম জানতে সহায়তা করবে। এই সার্টিফিকেট অবশ্যই নির্দিষ্ট অনুবাদ অফিস থেকে অনুবাদ বা ইতালিয়ান এমব্যাসি থেকে অনুবাদ সহ সত্যায়িত করে আনতে হবে।
  • এমব্যাসি অর্থাৎ বাংলাদেশে ইতালিয়ান দূতাবাস হতে স্কুল সার্টিফিকেটের বিশেষ অর্থ এবং ব্যাখ্যা ও বর্ণনা সহ কাগজ ( মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলের সার্টিফিকেট) করে আনতে হবে।
  • অনুবাদ সহ টিকা সার্টিফিকেট আনতে হবে।
  • নিজস্ব দেশে অবস্থিত ইতালিয়ান এমব্যাসি থেকে স্কুল সার্টিফিকেটের সঠিক অর্থ বিশ্লেষণ করে নিলে সেই সার্টিফিকেটকে স্কুল সার্টিফিকেটের বিশেষ অর্থ ব্যাখ্যা বলা যেতে পারে। সার্টিফিকেটের বিশ্লেষণ নিজস্ব দেশের ইতালিয়ান দূতাবাসে পাওয়া যায়।

সতর্কীকরণ: শুধু মাত্র যারা মাধ্যমিক স্কুলের পরীক্ষায় পাশ করেছে তাদের জন্যে স্কুল সার্টিফিকেটের বিশেষ অর্থ সহ ব্যাখ্যার রুপ ভিন্ন হতে পারে।

 

 

প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ( ৬ থেকে ১৪ বছর পর্যন্ত)

শিশুরা ইতালিতে আসার পর যা করতে হবেঃ

  • ইতালির স্কুলে ভর্তির ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে হবে এবং স্কুলের সেক্রেটারির অফিসের ফোন নাম্বার জানা থাকলে ফোন করে ভর্তি বিষয়ক আলাপনের তারিখ নির্ধারণ করতে হবে আথবা সরাসরি জনসাধারনের জন্য স্কুলের অফিস খোলার সময়ের মধ্যে যেতে হবে।
  • ছেলেমেয়েদেরকে (১১ থেকে ১৬ বছর) বিকাল বেলা ক্লাস করার ইতালিয়ান ভাষা কোর্সে ভর্তি করানো যাবে অথবা ইতালিয়ান খেলাধূলা করার জন্য ভর্তি করানো যাবে ( খেলাধূলার স্থান, ৬ থেকে ১০ বছরের ছেলেমেয়েদের জন্য কোর্স)। এই কোর্স গুলো করার সুযোগ নিজ এলাকায় আছে কিনা তা জানতে হবে।
  • নিজ রেসিডেন্স এলাকায় কমুনের অফিসে যোগাযোগ করে বিভিন্ন স্কুলের অবস্থান সম্পর্কে, বিকাল বেলার কোর্স সম্পর্কে ও আরো অন্যান্য বিষয়ের উপর তথ্য নিতে হবে।

 

 

উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ( ১৪ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত)

ছেলেমেয়েরা ইতালিতে আসলে যা করতে হবেঃ

আপনাদের ছেলেমেয়েরা যদি ৮ বছর পড়াশুনা শেষ করার সার্টিফিকেট নিয়ে আসে এবং স্কুল সার্টিফিকেটের বিশেষ অর্থ সহ ব্যখ্যা কাগজটি নিয়ে আসে তাহলে উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি হতে পারবে -

  • বাড়ীর নিকটস্থ মাধ্যমিক অর্থাৎ হাই স্কুলে যোগাযোগ করে বিভিন্ন উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সম্পর্কে জানতে হবে এবং স্কুলের সিলেবাস ও বিষয়ের উপর তথ্য নিতে হবে।

আপনাদের ছেলেমেয়েরা যদি ৮ বছর পড়াশুনা শেষ করার সার্টিফিকেট সঙ্গে নিয়ে আসতে না পারে তাহলে- অষ্টম শ্রেণীতে পরীক্ষা দিতে হবে এবং ভর্তির ব্যপারে যা করতে হবেঃ

  • যদি বয়স ১৬ বছরের কম হয় তাহলে অষ্টম শ্রেণীর পরীক্ষা দেওয়ার জন্যে মাদ্ধমিক স্কুলে ভর্তি হতে পারবে। যদি বয়স ১৬ বছর পূর্ণ হয়ে থাকে তাহলে চিতিপি অর্থাৎ বিশেষ মাধ্যমিক শিক্ষা সেন্টারে ভর্তি হতে পারবে।
  • এ ক্ষেত্রে দেশের আত্মীয়দেরকে দিয়ে অষ্টম শ্রেণীর স্কুল সার্টিফিকেটের বিশেষ অর্থ সহ ব্যখ্যা কাগজতি তৈরি করতে দিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি হতে পারবে।

 

 

পড়াশুনার জন্য আর্থিক সুযোগ সুবিধা আদায় করতে হলে ( যেমন- ক্যান্টিনে খাবার টিকেট, পড়াশুনার খরচ, খরিদকৃত বইয়ের অর্থ ফেরত পাওয়ার জন্য, স্কুলে যাওয়ার যানবাহন খরচ) স্কুলের সেক্রেটারী অফিস থেকে তথ্য নিতে হবে।পড়াশুনার জন্য আর্থিক সুযোগ সুবিধা আদায় করতে যে জরুরী সার্টিফিকেট প্রয়োজন হয় তা হলে ইসে সার্টিফিকেট ISEE .

ইসে সার্টিফিকেট

ইসে সার্টিফিকেটে আপনার পরিবারের সকল সদস্যের বর্ণনাসহ সর্বমোট কি পরিমান অর্থ উপার্জন করেন তার বিস্তারিত উল্লেখ থাকে এবং এটি সামাজিক সুযোগ সুবিধা অর্থাৎ আর্থিক বা অন্যান্য যে কোন ধরনের সাহায্য সহযোগিতা পেতে সাহায্য করে একটি পরিবারকে তবে আপনি কি পরিমান সাহায্য পাবেন তা নির্ভর করে আপনার ইনকামের উপর।অর্থ উপার্জন, সম্পত্তি ও পরিবারের সদস্য গননা করে ইসে সার্টিফিকেট তৈরী করা হয়। ইসে সার্টিফিকেট তৈরীর জন্য কাফ (CAF যার পুরো নাম CENTRO ASSISTENZA FISCALE E PREVIDENZIALE) নামক অফিসে আবেদন করতে হয়। এবং বেশির ভাগ কাফ অফিসে এটি ফ্রি করে দেয়।

জরুরী বিষয়!!! 

ছেলেমেয়েকে ইতালি নিয়ে আসার সবচেয়ে সঠিক সময় হোল গ্রীষ্মকাল বা গরমের শুরু, যাহার কারন হলো সেপ্টেম্বর থেকে ক্লাস শুরু করে স্কুলের শিক্ষা বছরে প্রথম অংশ গ্রহণ করতে পারবে। এছাড়াও গ্রীষ্ম কোর্স এ ইতালিয়ান ভাষা শিক্ষা ক্লাস করতে পারবে অথবা খেলাধুলায় (গ্রীষ্ম আয়োজন ) অংশ গ্রহনের মাধ্যমেও ইতালিয়ান ভাষা শিখতে পারবে।

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে জানতেএখানে ক্লিক করুণতুলে ধরুন  নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান ]] আর আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে রয়েছে অনেক মজার মজার সব ভিডিও সহ আরো অনেক মজার মজার টিপস  তাই এগুলো থেকে  বঞ্চিত হতে না চাইলে এক্ষনি আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে আসুন। আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে যেতে এখানে ক্লিক করুন।  

InstaForex *****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

ইতালিতে পরতে আসা স্টুডেন্ট দের জন্য সুখবর।
ইতালিতে স্টুডেন্ট ভিসা নেওয়ার ক্ষেত্রে কীভাবে কি করবেন তার সকল তথ্য একসাথে।
ইতালিতে ২০১৫ সালের স্কলারশিপ সহ স্টুডেন্ট ভিসায় আবেদন করার শেষ সময় ২০শে জানুয়ারী ২০১৫।
যারা ইতালিতে ২০১৫ সালের স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে চান এবং যাদের ইতিমধ্যে আই ও এম করা রয়েছে তাদ...
যারা ইতালিতে ২০১৫ সালের স্টুডেন্ট ভিসার দ্বিতীয় সেশন তথা মাস্টার্স প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করতে চান ত...
ইতালিতে আজ থেকে শুরু হল সকল শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীর স্কুল ভর্তির কার্যক্রম কিন্তু শুধুই অনলাইনের মাধ্য...

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 154 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 0 comments… add one now }

Leave a Comment