ডিম খেতে আর বাধা নাই

by sohorab on অক্টোবর ৩০, ২০১৩পোস্ট টি ৩৭১ বার পড়া হয়েছে in স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

sohorab<>অনেকে ডিম খাওয়ার পক্ষে বলেন কেউবা ডিম খাওয়ার ঘোর বিরোধী। হয়ত ডিম আপনার খুব পছন্দ কিন্তু বাসায় ডিম শরীরের জন্য ক্ষতিকর বলে সপ্তাহে একদিন বা দুই দিন দিচ্ছে। তবে এবার গবেষণায় বেরিয়েছে নতুন তথ্য। সেটি হল ডিম শরীরের জন্য মোটেই ক্ষতিকর নয়। তাই নতুন এই তথ্যটি বাসায় জানিয়ে দিন আর এখনই প্রতিদিনের মেন্যুতে রাখুন আপনার প্রিয় ডিম। আর যারা নিজেরা শরীর মুটিয়ে যাবার জন্য ডিম খাওয়া প্রায় ছেড়েই দিয়েছেন তারা ডিম খাওয়া শুরু করে দিতে পারেন নিশ্চিন্তে। আসুন জেনে নেয়া যাক আপনি কেন ডিম খাওয়া শুরু করবেন–

ডিমের প্রতি সদয় হোন: অনেকে আপনাকে ডিম খেতে বারণ করতে পারেন। যারা বারণ করেন তারা মনে করেন ডিমে কোলস্টেরলের পরিমাণ বেশি। আর অতিরিক্ত কোলস্টেরল শরীরের জন্য ক্ষতিকর। তবে গবেষণায় দেখা গেছে ডিম শরীরকে সুস্থ্য রাখতে বিরাট ভূমিকা পালন করে। এছাড়া হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতেও সহায়তা করে ডিম। এটা একটা কুসংস্কার হয়ে দাঁড়িয়েছে যে ডিম শরীরের জন্য ক্ষতিকারক।
ডিম শরীরে ভিটামিন সরবরাহ করে: ডিমে রয়েছে ভিটামিন বি টু যা মানব শরীরের শক্তি যোগায়। এছাড়াও রয়েছে ভিটামিন এ যা চোখের জন্য খুবই উপকারি। ডিমে আরো আছে ভিটামিন এ যা শরীরের টিস্যুকে সক্রিয় রাখে। এছাড়াও ভিটামিন বি টু ও এ শরীরের সেল তৈরিতেও সহায়ক ভূমিকা রাখে। সুতরাং প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় আপনি ডিম রাখতেই পারেন।
শরীরে মিনারেল যোগায়: ডিমে রয়েছে ফসফরাস, আয়রন ও জিঙ্ক। আর এ তিনটি উপাদান মানব শরীরের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় একটি বিষয়। শরীরকে ক্লান্তিমুক্ত রাখে আয়রন। খাবার থেকে শক্তি সঞ্চয় করতে সাহায্য করে জিঙ্ক। আর দাঁত ও হাড়ের জন্য কাজ করে ফসফরাস। থাইরয়েডের হরমোন প্রতিরোধেও কাজ করে ডিম। সুতরাং ডিম খাওয়া মানা কথাটি এবার এড়িয়ে যেতে পারেন নি:সন্দেহে।
ক্যান্সার রোধেও সহায়তা করে ডিম: ক্যান্সার রোধেও ডিম কাজ করে ঔষুধের মতো। গবেষণায় দেখা গেছে ডিম খেলে শতকরা ২৫ শতাংশ ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে। সুতরাং মহিলারা এখন ডিমের ওমলেট খেতেই পারেন।
চোখ ভালো রাখে: চোখের জ্যোতি ভালো রাখতে ভূমিকা রাখে ডিম। নিয়মিত ডিম খেলে ৮০ বছরেও ভালো থাকবে আপনার চোখ। গবেষণায় দেখা গেছে সকালে একটি ডিম খেলে ৪০১ ক্যালোরির সমান কাজ করে। অনেকে বলেন ডিম খেলে কোলস্টেরল বাড়ে তবে এমন যুক্তির কোন লিখিত ব্যাখ্যা নেই।
এছাড়াও ডিমে রয়েছে অ্যামাইনো এসিড যা আপনার শরীরে প্রোটিন সরবরাহ করে। এর অর্থ একটি সেদ্ধ ডিম প্রতিদিন ব্যায়ামের পর আপনি খেতেই পারেন। এটা শরীর গঠনেও সহায়তা করে।

[[ আপনি জানেন কি? আমাদের সাইটে আপনিও পারবেন আপনার নিজের লেখা জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনার বা আপনার এলাকার খবর তুলে ধরতে এই লেখায় ক্লিক করে জানুন এবং  তুলে ধরুন। নিজে জানুন এবং অন্যকে জানান। আর আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে রয়েছে অনেক মজার মজার সব ভিডিও সহ আরো অনেক মজার মজার টিপস তাই এগুলো থেকে বঞ্চিত হতে না চাইলে এক্ষনি আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে আসুন। এবং আপনি এখন থেকে প্রবাস জীবনে আমাদের সাইটের মাধ্যমে আপনার যেকোনো বেক্তিগত জিনিসের ক্রয়/বিক্রয় সহ সকল ধরনের বিজ্ঞাপন ফ্রিতে দিতে পাড়বেন। ]]

*****লেখাটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ!*****

সম্পর্কিত আরো কিছু পোস্ট দেখতে পারেন...

শ্বাসকষ্ট, অ্যাজমা বা হাঁপানি থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায়
নতুন আবিস্কার ক্ষতস্থান সেলাইয়ের বদলে ঝালাই!
জেনে নিন ডায়াবেটিসের ১০টি সাধারণ লক্ষণ ?
সাবধান! ওজন কমানোর চেষ্টায় আপনি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হতে পারেন
তাহমিনা ইয়াসমিন শশী,ইতালির ভেনিস প্রবাসী- ফর্সা ত্বকই সুন্দর ত্বক নয়
মাত্র ৬ দিনেই ক্যান্সার থেকে মুক্তি

এই লেখাটি লিখেছেন...

– সে এই পর্যন্ত 12 টি পোস্ট লিখেছেন এই সাইট এর জন্য আমিওপারি ডট কম.

লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন !

আপনার মন্তব্য লিখুন

{ 0 comments… add one now }

Leave a Comment